নিউজ ডেস্ক: দেশে করোনায় গত ২৪ ঘণ্টায় আরো ৪৫ জনের প্রাণহানি হয়েছে। সব মিলিয়ে মারা গেলেন ১ হাজার ৭৮৩ জন।

এছাড়া একদিনে ৪ হাজার পেরোল কোভিড আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত হয়েছে ৪ হাজার ১৪ জন। একদিনে এটি এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ। এ নিয়ে মোট শনাক্ত হলেন ১ লাখ ৪১ হাজার ৮০১ জন।

রোববার (২৯ জুন) দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদফতরের নিয়মিত বুলেটিনে যুক্ত হয়ে করোনাভাইরাসের সর্বশেষ পরিস্থিতি তুলে ধরেন অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা।

৬৫টি ল্যাবে নমুনা পরীক্ষার তথ্য তুলে ধরে তিনি বলেন, করোনাভাইরাস শনাক্তে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ১৪ হাজার ৪১৩টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়। আগের সংগ্রহ করাসহ মোট পরীক্ষা করা হয় ১৭ হাজার ৮৩৭টি। এ নিয়ে দেশে মোট নমুনা পরীক্ষা করা হলো সাত লাখ ৪৮ হাজার ৩৪টি।

অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা আরো জানান, নতুন করে যে ৪৫ জন মারা গেছেন তাদের মধ্যে পুরুষ ৩৬ ও নারী ৯ জন। এ নিয়ে কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়ে দেশে মোট মারা গেলেন এক হাজার ৭৮৩ জন। শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যু হার ১ দশমিক ২৭ শতাংশ।

তিনি আরো জানান, বয়স বিভাজনে ২১-৩০ বছরের মধ্যে ২ জন, ৩১-৪০ বছরের মধ্যে ৩ জন, ৪১-৫০ বছরের মধ্যে ৭ জন, ৫১-৬০ বছরের মধ্যে ১১ জন, ৬১-৭০ বছরের মধ্যে ১৪ জন, ৭১-৮০ বছরের মধ্যে ৬ মারা এবং ৮১-৯০ বছরের মধ্যে একজন এবং ৯১-১০০ বছরের মধ্যে একজন মারা গেছেন।

অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা জানান, বিভাগভিত্তিক বিশ্লেষণে দেখা গেছে, ঢাকা বিভাগে ২২ জন, চট্টগ্রামে ১০ জন, রাজশাহীতে একজন, সিলেটে ৩ জন, খুলনায় ৫ জন, বরিশালে ৩ জন এবং ময়মনসিংহে একজন মারা গেছেন। এর মধ্যে হাসপাতালে ৩০ জন ও বাড়িতে ১৪ জন মারা গেছেন। মৃত অবস্থায় হাসপাতালে এসেছেন একজন।

তিনি আরো জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন আরও ২ হাজার ৫৩ জন। সব মিলিয়ে মোট সুস্থ রোগীর সংখ্যা এখন ৫৭ হাজার ৭৮০। সুস্থতার হার ৪০ দশমিক ৭৫ শতাংশ।