নিউজ ডেস্ক: দিনাজপুরের কাহারোলে পারিবারিক কলহের জেরে রুপালি রানী রায় (৩০) নামে এক গৃহবধূকে পিটিয়ে ও শ্বাসরোধ করে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় অভিযান চালিয়ে নিহত গৃহবধূর শ্বশুর জিতেন চন্দ্র রায় ও শাশুড়ি সুবলা রানী রায়কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তবে স্বামী পলাতক রয়েছেন।

সোমবার (১২ অক্টোবর) গ্রেফতার শ্বশুর জিতেন চন্দ্র রায় ও শাশুড়ি সুবলা রানী রায়কে আদালতে পাঠানো হয়েছে। এর আগে রোববার দুপুরে উপজেলার পারিবারিক কলহের জেরে এ হত্যাকাণ্ড ঘটে। নিহত রুপালি রানী রায় কাহারোল উপজেলার সুন্দইল চিরাকুটিপাড়া গ্রামের বিশুরাম রায়ের স্ত্রী।

বিষয়টি নিশ্চিত করে কাহারোল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনোজ কুমার রায় জানান, পারিবারিক কলহের কারণেই এ ঘটনা ঘটেছে। হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে রাতে রুপালির বাবা পরেশ চন্দ্র রায় বাদী হয়ে তিনজনকে আসামি করে কাহারোল থানায় একটি হত্যা মামলা করেন (মামলা নং-২, তারিখ-১১.১০.২০২০)। পুলিশ রাতেই অভিযান চালিয়ে শ্বশুর ও শাশুড়িকে গ্রেফতার করে। গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সোমবার দিনাজপুর এম আবদুল রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। স্বামী বিশুরাম রায়কে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলে জানান তিনি।