নিজস্ব প্রতিবেদক: বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর অনেকের প্রার্থীতা বৈধ হওয়া প্রসঙ্গে বলেন, ‘আমি মনে করি এটা একটা বিজয়। আমি এটাও বিশ্বাস করি, ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠিত হলে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াও বৈধ প্রার্থী হিসেবে বিবেচিত হবেন’।

বৃহস্পতিবার বিকালে গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে উপস্থিত সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তিনি।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘আমরা বরাবরই বলে আসছি। সরকারি কর্মকর্তাদের অনেক সময় সরকারের কথা মেনে নিতে হয়। ফলে তারা ন্যায়বিচার করতে পারেন নি।

আপিলে বিএনপির বেশ কয়েকজন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করায় নির্বাচন কমিশনকে ‘ধন্যবাদ’জানিয়েছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

তিনি বলেন, ‘আজকে অনেকেই প্রার্থী হওয়ার যোগ্য বলে বিবেচিত হয়েছেন। আমি নির্বাচন কমিশনকে ধন্যবাদ জানাই। তারা ন্যায়বিচার করেছেন। এ থেকে প্রমাণিত হয় নির্বাচন কমিশন যেখানে যেখানে রিটার্নিং অফিসারের কর্মকর্তাদের দায়িত্ব দিয়েছিলেন, সেখানে প্রার্থীরা ন্যায়বিচার পাননি।’

গ্রেফতার প্রসঙ্গে বিএনপির মহাসচিব বলেন, ‘গ্রেফতার তো চলেই। বার বার প্রতিশ্রুতি দেয়ার পরও গ্রেফতার চলছে। বিএনপির কর্মসূচিতে বাধা দেয়া হচ্ছে। এতে নির্বাচনের নিরপেক্ষতা নষ্ট হচ্ছে’।

এক প্রশ্নের জবাবে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘বৃহস্পতিবার রাত আটটার দিকে বিএনপির কিছু প্রার্থীর নাম ঘোষণা করতে পারবো’।