নিজস্ব প্রতিবেদক: গুরুদাসপুরে নতুন বিদ্যুৎ সংযোগ প্রদানের জন্য ‘আলোর ফেরিওয়ালা’ নামে এক দিনের এক কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়েছে। এসময় বিদ্যুৎ প্রত্যাশীরা ৫০টিরও বেশি আবেদন করেছেন বলে জানান নাটোর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২ কর্তৃপক্ষ।

বৃহস্পতিবার (১০ জানুয়ারি) নাটোর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২ গুরুদাসপুর জোনাল অফিসের ডিজিএম মো. মুহিতুল ইসলামের নেতৃত্বে একটি টিম ভ্যানে করে মিটার-তারসহ যাবতীয় বৈদ্যুতিক সরঞ্জাম নিয়ে উপজেলার প্রত্যন্ত গ্রাম খুবজীপুরের সাধারণ মানুষের ঘরে ঘরে পৌঁছান। এরপর বিদ্যুৎ সংযোগের অনুমোদন নেন গ্রাহকরা। অনুমোদন হতেই ২০টি নতুন বিদ্যুৎ সংযোগ প্রদান করা হয়।

এসময় কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন গুরুদাসপুর পল্লী বিদ্যুৎ অফিসের হিসাব সহকারী লুৎফর রহমান, ওয়ারিং পরিদর্শক মঞ্জুর হোসেন, খুবজীপুর অফিস ইনচার্জ মকবুল হোসেন, লাইনম্যান সামিউল ইসলাম, ইলেক্ট্রিশিয়ান তারিকুল ইসলাম ও মোস্তাফিজুর রহমান প্রমুখ।

এব্যাপারে ডিজিএম মো. মুহিতুল ইসলাম বলেন, আজ থেকে ১০ বছর আগেও বিদ্যুৎ পাওয়াটা ছিল মানুষের জন্য স্বপ্নের ব্যাপার। হাজার হাজার টাকা দিয়েও জোটেনি বিদ্যুতের লাইন। সেখানে মাত্র ৫ মিনিটে ঘরে বসেই বৈদ্যুতিক লাইন পাচ্ছে সাধারণ মানুষ।

তিনি আরো বলেন, এই উন্নয়ন অগ্রগতিতে ‘শেখ হাসিনার উদ্যোগ-ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ’ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে চলমান এ প্রক্রিয়া অব্যাহত থাকবে।