নাটোরের গুরুদাসপুরে উপজেলার খুবজিপুর ইউনিয়নের কালাকান্দর গ্রামে গোয়াল ঘরে রাখা কয়েলের আগুনে গোয়ালের ছয়টি গরু পুড়ে মারা গেছে। ছবি: সংগৃহীত

নিজস্ব প্রতিবেদক: নাটোরের গুরুদাসপুরে গোয়াল ঘরে রাখা কয়েলের আগুনে গোয়ালের ছয়টি গরু পুড়ে মারা গেছে। ছয়টি গরুর মধ্যে তিনটি গাভী গরু ও তিনটি বাচ্চা গরু ছিল। গরুগুলোর মালিক সুলাইমান নামে এক কৃষক।

বুধবার (১১ ডিসেম্বর) সকালে উপজেলা চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তমাল হোসেন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এসময় দূর্যোগ ব্যবস্থাপনার কর্মকর্তা মোঃ হান্নান সরকার উপস্থিত ছিলেন। এর আগে মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১টার দিকে উপজেলার খুবজিপুর ইউনিয়নের কালাকান্দর গ্রামে এই মর্মান্তিক ঘটনা ঘটে।

এলাকাবাসীর সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১টার দিকে প্রতিবেশীরা আগুনের লেলিহান শিখা দেখে ফায়ার সার্ভিসে খবর দেয়। পরে গ্রামবাসী ও ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট এক ঘন্টা চেষ্টা করে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। কিন্ত ততক্ষণে গোয়ালঘরে রাখা ছয়টি গরু পুড়ে মারা যায়। প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা তার প্রায় ৮লক্ষ টাকার ক্ষতি হয়েছে।

ফায়ার সার্ভিসের গুরুদাসপুর ইউনিট প্রধান আব্দুর রাজ্জাক জানান, খবর পেয়ে সেখানে গিয়ে এক ঘন্টা চেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হয়। কয়েলে মাধ্যমে আগুন ধরেছে বলেও তিনি জানান।

এ ঘটনার পর বুধবার সকালে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ তমাল হোসেন ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে শুকনা খাবার ও কম্বল বিতরণ করেন। পরবর্তীতে উপজেলা প্রশাসনের মাধ্যমে আরো সহযোগিতার আশ্বাস দেন তিনি।