নিউজ ডেস্ক: তথ্য ও যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এমপি বলেছেন, করোনা মহামারীকালীন বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত নাটোরের চলনবিলের একটি মানুষও অনাহারে অর্ধাহারে রাখবে না শেখ হাসিনার সরকার।

বুধবার (২৯ জুলাই) বন্যাকবলিত নাটোরের সিংড়ায় ত্রাণ বিতরণকালে এসব কথা বলেন তিনি। এসময় সিংড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক রুহুল আমিন, কলম ইউপি চেয়ারম্যান মাইনুল ইসলাম চুনু প্রমুখ তার সঙ্গে ছিলেন।

এর আগে সকাল ১০ টায় সিংড়া থেকে নৌকা ও ভ্যানে চড়ে এমনকি কাদাপানি মাড়িয়ে আত্রাই নদীর তীরে মানুষজনের বাড়ীতে পানি ঢুকে ক্ষয়ক্ষতি প্রত্যক্ষ করেন। এছাড়া ভেঙ্গে যাওয়া কলকলি বাঁধ জিও ব্যাগ ফেলে পানি উন্নয়ন বোর্ডের উন্নয়ন কাজ পরিদর্শন করেন।

তিনি আরো বলেন, এবারের বন্যায় উপজেলার ৮টি ইউনিয়ন ও পৌরসভার ১২টি ওয়ার্ডের মানুষ এখন পানিবন্দি এবং সাড়ে ৩ হাজার হেক্টর জমির ফসল ও প্রায় একশ’ পুকুরের মাছ ভেসে গেছে। বন্যার্ত মানুষদের খাদ্য ও চিকিৎসা সহায়তা প্রদানসহ বিভিন্ন বাঁধ রক্ষায় নানা রকম কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়েছে।

প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, সিংড়া এলাকার বন্যার্ত মানুষদের তাৎক্ষনিক সহযোগিতার পাশাপাশি বন্যার পানি নেমে গেলে তাদের পুনর্বাসন করা এবং রাস্তা ঘাট এবং অবকাঠামো উন্নয়নে সার্বিক সহযোগিতা করা হবে।

জুনাইদ আহমেদ পলক আরো জানান, বর্তমানে চলনবিলে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় আমার নির্বাচনী এলাকা নাটোর জেলার সিংড়া উপজেলায় ৩৩টি বন্যা আশ্রয় কেন্দ্র চালু করা হয়েছে। যেখানে সহস্রাধিক পরিবারের প্রায় আড়াই হাজারের অধিক মানুষের তিনবেলা থাকা-খাওয়ার ব্যবস্থা নিশ্চিত করা হয়েছে।