চলনবিলে নৌকায় অশ্লীল নৃত্য: নর্তকীসহ গ্রেপ্তার ১৫। ছবি: মো. আখলাকুজ্জামান

নিউজ ডেস্ক: চলনবিল অধ্যুষিত নাটোরের গুরুদাসপুর উপজেলার বিলসা এলাকায় মাঝবিলে নৌকায় নর্তকী নিয়ে আনন্দ-ফুর্তিকালে দুই নর্তকীসহ ১৫ জনকে গ্রেপ্তার করেছে গুরুদাসপুর থানা পুলিশ। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন গুরুদাসপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. মোজাহারুল ইসলাম।

মঙ্গলবার (১১ আগস্ট) সকালে আটকৃতদের নামে মামলা রুজু করে নাটোর জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। এর আগে সোমবার রাতে উপজেলার চলনবিল বিলসা এলাকার মাঝবিলের থেকে নৌকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃত দুই নর্তকীর বাড়ি বগুড়ার শেরপুরে এবং আটকৃত ১৩ জন যুবকের বাড়ি সিরাজগঞ্জের তাড়াশ উপজেলার নাদোশহীদপুর এলাকায়।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, চলনবিল এলাকায় প্রতিদিন নৌকায় উচ্চস্বরে গান-বাজনা এবং মেয়েদেরকে দিয়ে অশ্লীল নৃত্য পরিবেশন করার হয় বলে বিভিন্ন ধরনের অভিযোগ পাওয়া যায়। অভিযোগের প্রেক্ষিতে বিলসা এলাকায় অভিযান চালানো হয়। এসময় বিলসা এলাকার মাঝবিলে তাড়াশ থেকে আগত এক নৌকায় উচ্চ শব্দে গান বাজিয়ে অশ্লীল নৃত্য চলার সময় দুজন নর্তকীসহ ১৫ জনকে হাতেনাতে আটক করা হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে গুরুদাসপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. মোজাহারুল ইসলাম জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উপজেলার চলনবিল বিলসা এলাকায় পুলিশ অভিযান পরিচালনা করে ১৩ জন ছেলে ও দুই নর্তকীকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

তিনি আরো জানান, গ্রেপ্তারকৃতদের নামে মামলা দায়ের করে নাটোর জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। নৌকা ভ্রমনের নামে কোন রকম অশ্লীল ফুর্তি করা যাবে না বলেও জানান তিনি।

কৃতজ্ঞতা: মো. আখলাকুজ্জামান