নিউজ ডেস্ক: রাজশাহীর বাঘা উপজেলায় ছাত্রলীগ সভাপতির বিরুদ্ধে এক কলেজছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে থানায় মামলা হয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বাঘা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নজরুল ইসলাম।

বৃহস্পতিবার (২২ অক্টোবর) বিকেলে ভুক্তভোগী কলেজছাত্রী বাদী হয়ে বাঘা ছাত্রলীগ নেতার নাম রিবন আহম্মেদ বাপ্পি (২৮)। তিনি আড়ানী পৌরসভা ছাত্রলীগের সভাপতি।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, রিবন আহম্মেদ বাপ্পি ওই ছাত্রীকে (১৮) বিয়ের প্রলোভন দিয়ে গত জুলাই মাসের শেষ সপ্তাহে চকরপাড়া গ্রামে এক বন্ধুর বাড়িতে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করেন। এরপর থেকে ওই ছাত্রী বাপ্পিকে বিয়ের জন্য চাপ দিতে থাকেন। কিন্তু বাপ্পি বিয়ে করতে রাজি হচ্ছিলেন না। এরপর তিনমাস অতিবাহিত হয়েছে।

এ ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে ওই ছাত্রী অবশেষে ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে থানায় মামলা করলেন। অভিযুক্ত ছাত্রলীগ নেতা বাপ্পি আড়ানী পৌরসভার চকসিংগা মহল্লার মৃত বাবুল হোসেনের ছেলে।

অভিযোগের বিষয়ে ছাত্রলীগ নেতা রিবন আহম্মেদ বাপ্পি বলেন, আসন্ন আড়ানী পৌরসভা নির্বাচনে আমি মেয়র প্রার্থী। এ কারণে একটি মহল আমার সুনাম ক্ষুণ্ণ করার জন্য বিভিন্ন ধরনের অপপ্রচার চালাচ্ছে। আমি এ ঘটনার সঙ্গে সম্পৃক্ত না।

বিষয়টি নিশ্চিত করে বাঘা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নজরুল ইসলাম বলেন, ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা হয়েছে। ওই ছাত্রীর শারীরিক পরীক্ষার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হবে। আসামিকে গ্রেফতার করা হবে বলেও জানান তিনি।