ছবি: প্রতীকী

নিউজ ডেস্ক: দেশে একদিনে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরো ৪০ জনের প্রাণহানি হয়েছে। এ নিয়ে প্রাণহানি সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪ হাজার ৯৭৯ জন।

সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর) স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। এছাড়া, একই সময়ে নতুন করে ১ হাজার ৭০৫ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। এ নিয়ে দেশে করোনা শনাক্ত হলো মোট ৩ লাখ ৫০ হাজার ৬২১ জনের।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরো জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় ৯৯টি করোনা পরীক্ষাগারে নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ১৩ হাজার ৫৩টি। এ পর্যন্ত মোট নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৮ লাখ ৩৪ হাজার ৩২৩টি। এর মধ্যে নতুন শনাক্ত হয়েছে ১ হাজার ৭০৫ জন। এ নিয়ে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল ৩ লাখ ৫০ হাজার ৬২১ জন।

বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যু হয়েছে আরও ৪০ জনের। এ নিয়ে করোনায় মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ৪ হাজার ৯৭৯ জনে। মৃতদের মধ্যে পুরুষ ২৭ জন ও নারী ১৩ জন। শনাক্ত বিবেচনায় মোট মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৪২ শতাংশ।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ২৪ ঘণ্টায় মৃত ৪০ জনের মধ্যে ২৭ জন পুরুষ ও নারী ১৩ জন। এদের মধ্যে রয়েছেন ঢাকা বিভাগে ২৬ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে নয় জন, রংপুর বিভাগে দুই জন। এছাড়া রাজশাহী, খুলনা ও বরিশাল বিভাগে এক জন করে তিন জন রয়েছেন। এদের মধ্যে হাসপাতালেই মারা গেছেন ৩৭ জন ও বাড়িতে দুই জন, মৃত অবস্থা হাসপাতালে গেছেন এক জন।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরো জানানো হয়, মৃতদের বয়স বিশ্লেষণে দেখা যায়, ৬০ বছরের ঊর্ধ্বে ২০ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ১০ জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে চার জন, ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে তিন জন, ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে দুই জন, শূন্য থেকে ১০ বছরের মধ্যে এক জন রয়েছেন।

বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে এসেছেন ৩২৯ জন ও আইসোলেশন থেকে ছাড় পেয়েছেন ৬৬৩ জন। এ পর্যন্ত আইসোলেশনে এসেছেন ৭৯ হাজার ২৯৩ জন। আইসোলেশন থেকে ছাড়পত্র নিয়েছেন ৬২ হাজার ৮৯১ জন। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ১৬ হাজার ৪০২ জন।

এছাড়া করোনা থেকে গত ২৪ ঘণ্টায় ২ হাজার ১৫২ জন রোগী সুস্থ হয়ে উঠেছেন। এখন পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ২ লাখ ৫৮ হাজার ৭১৭ জন। ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষার তুলনায় রোগী শনাক্তের হার ১৩ দশমিক শূন্য ৬ শতাংশ এবং এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষার তুলনায় রোগী শনাক্তের হার ১৯ দশমিক ১১ শতাংশ। রোগী শনাক্তের তুলনায় সুস্থতার হার ৭৩ দশমিক ৫৩ এবং মৃত্যুর হার এক দশমিক ৪২ শতাংশ।