নিউজ ডেস্ক: দিনাজপুরের নবাবগঞ্জে করতোয়া নদীর ভয়াবহ ভাঙনে বাড়ি-ঘর হারিয়ে নিঃস্ব হয়েছেন শতাধিক পরিবার। এছাড়া হুমকির মুখে আছে বাড়ি-ঘর, মসজিদ, কবরস্থান, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ বেশকিছু স্থাপনা।

জানা গেছে, উপজেলার বিনোদনগর ইউনিয়নের বেশ কয়েকটি গ্রামের বেশ কিছু বাড়ি, মসজিদ, কবরস্থান, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান করতোয়া নদীর পানির স্রোতে ভেঙে গেছে। এছাড়া দাউদপুর ইউনিয়নের ফকিরপাড়া, বালুয়া এবং জাতেরঘাট গ্রামের শতাধিক পরিবার ঘর-বাড়ি হারিয়ে নিঃস্ব হয়ে পড়েছেন। এর আগেও কয়েক বছরে মসজিদ, কবরস্থানসহ একের পর এক বাড়ি করতোয়ার বুকে বিলীন হয়ে নিঃস্ব হয়েছেন প্রায় শতাধিক পরিবার।

এ ব্যাপারে নবাবগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান আতাউর রহমান জানান, অতিরিক্ত বৃষ্টির কারণে দাউদপুর, বিনোদনগর ইউনিয়নসহ কয়েকটি গ্রাম করতোয়া নদীর পানিতে ভেঙে যাচ্ছে। ইতোমধ্যে বেশ কয়েকটি বাড়ি, মসজিদ, কবরস্থান ভেঙে গেছে। এছাড়া একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় হুমকির মুখে রয়েছে। ভাঙন রোধে পানি উন্নয়ন বোর্ডসহ দিনাজপুর ডিসি মহদোয়কে লিখিতভাব অনুরোধ করবেন বলে জানান তিনি