নিউজ ডেস্ক: নাটোরে নতুন করে আরো ৬ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এর আগে আরো দু’জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। এনিয়ে জেলায় মোট করোনা হলেন আক্রান্ত ৯৬ জন। এছাড়া সুস্থ হয়েছেন ৫১ জন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নাটোরের সিভিল সার্জন ডাঃ মিজানুর রহমান।

বুধবার (১৭ জুন) রাতে জানানো হয়, আক্রান্তদের মধ্যে আগের দু’জনসহ নাটোর সদরে ৩ জন বড়াইগ্রামে ২ জন ও গুরুদাসপুরে ৩ জন রয়েছেন। এদের মধ্যে বড়াইগ্রামে একজন স্বাস্থ্যকর্মী করোনা পজিটিভ হয়েছেন। এছাড়া নাটোরের একজন অর্থপেডিক ডাক্তার, চৌধুরী বড়গাছা এলাকার এক গৃহিনী এবং সদর উপজেলার চাঁদপুর গ্রামের এক মার্কেটিং কর্মকর্তাসহ জেলায় মোট ৮ জন করোনা রোগী সনাক্তের কথা জানিয়েছে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ।

জানা গেছে, আক্রান্তদের মধ্যে শহরের একজন স্বনামধন্য অর্থপেডিক ডাক্তার রয়েছেন, যিনি বর্তমানে ঢাকায় অবস্থান করছেন বলে জানা গেছে। আর শহরের চৌধুরী বড়গাছা এলাকায় আক্রান্ত গৃহিনী একজন চিকিৎসকের বোন। অপরজন সদর উপজেলার চাঁদপুর গ্রামের ২৫ বছর বয়সী এক যুবক। যিনি বেসরকারি একটি প্রতিষ্ঠানের মার্কেটিং বিভাগে কর্মরত রয়েছেন।

অপরদিকে বড়াইগ্রামে আক্রান্ত ২ জনের মধ্যে একজন সরকারি স্বাস্থ্যকর্মী। তিনি উপজেলার দাড়িখৈড় কমিউনিটি ক্লিনিকের কমিউনিটি হেল্থ প্রোভাইডার হিসাবে কর্মরত রয়েছে। অপরজনের বাড়ি চান্দাই ইউনিয়নের রাজেন্দ্রপুর গ্রামে। তিনি পেশায় সে একজন রাজমিস্ত্রি।

এছাড়া গুরুদাসপুরে আক্রান্ত ৩ জনের মধ্যে স্বামী-স্ত্রী রয়েছেন। যাদের মধ্যে স্ত্রী একটি বেসরকারি ক্লিনিকে কর্মরত রয়েছেন। তার স্বামী একজন কৃষক।অপরজনের বাড়ি চাঁচকৈড় খলিফাপাড়া মহল্লায়। পেশায় তিনি একজন বালু ব্যবসায়ী।

তিনি আরো জানান, বুধবার পর্যন্ত আক্রান্ত ৯৬ জন। আর সুস্থ হয়েছেন ৫১ জন। অবশিষ্ট ৪৫ জন বিভিন্ন স্থানে চিকিৎসা নিচ্ছেন। নতুন আক্রান্তদের বাড়ি লকডাউন করাসহ তাদের সংস্পর্শে যারা এসেছেন তাদের নমুনা সংগ্রহ করার উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।