নিউজ ডেস্ক: নাটোরে আরো তিনজন করোনা আক্রান্ত বলে শনাক্ত হয়েছেন। এদের মধ্যে একজন নাটোর সদর উপজেলার একজন, লালপুর উপজেলার একজন ও অপরজন গুরুদাসপুরে বাসিন্দা। এ নিয়ে জেলায় মোট আক্রান্ত ২৫৬ জন। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ৭৬ জন।

মঙ্গলবার (৭ জুলাই) রাতে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নাটোরের সিভিল সার্জন মিজানুর রহমান।

জানা গেছে, গুরুদাসপুরে আক্রান্ত ব্যক্তি নাটোর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও নাটোর-৪ (গুরুদাসপুর-বড়াইগ্রাম) আসনের সংসদ সদস্য অধ্যাপক আব্দুল কুদ্দুসের শ্যালক। কয়েকদিন আগে তিনি ঢাকা থেকে ফিরে এসে করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা দেন।

এছাড়া আক্রান্ত নাটোর জেলা তথ্য কর্মকর্তার মেয়ে আক্রান্ত হয়েছেন করোনায়। তথ্য কর্মকর্তার কন্যা একজন শিক্ষার্থী। তারা রাজশাহীর সাগরপাড়ায় বসবাস করলেও নমুনা প্রদান করেছেন নাটোরে। তবে তারা সবাই বর্তমানে রাজশাহীর বাসায় অবস্থান করছেন।

অপরদিকে লালপুর উপজেলার চংধুপইল ইউনিয়নের শোভ গ্রামের এক যুবক করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। ৩১ বছর বয়সী ওই যুবক একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করতেন।বর্তমানে গ্রামের বাড়িতেই অবস্থান করছেন। তিনি নতুন একটি বেসরকারি চাকরির জন্য আবেদন করলে সেই প্রতিষ্ঠান থেকে তাকে করোনা টেস্ট করতে বলা হয়। টেস্ট করার পর তার শরীরে করোনা পজিটিভ শনাক্ত হন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে নাটোরের সিভিল সার্জন মিজানুর রহমান জানান, আক্রান্তদের হোম আইসোলেশান নিশ্চিত করা করা হবে। এছাড়া আক্রান্ত ব্যক্তিরা যাদের সংষ্পর্শে এসেছেন তাদের নমুনা সংগ্রহের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি।