নিউজ ডেস্ক: নাটোরে আরো ১৩ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে নাটোরে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৩৪০ জন। আর সুস্থ হয়েছেন ১১৫ জন। এছাড়া ১জনের মৃত্যু হয়েছে।

শুক্রবার (১৭ জুলাই) রাতে এই তথ্য জানায় নাটোরের সিভিল সার্জন অফিস। তবে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে পাওয়া তথ্য উপাত্ত বিশ্লেষনে দেখা গেছে, নাটোরে আজ মোট ১৭টি পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে। এর মধ্যে ৪টি আগের আক্রান্ত। তাদের ফলোআপ রিপোর্টও পজিটিভ এসেছে।

আক্রান্ত ব্যক্তিরা হলেন, নাটোর শহরের মাদ্রাসা মোড় এলাকায় বসবাসকারী কামাল হোসেন। তিনি গুরুদাসপুর ইসলামী ব্যাংকে চাকরি করেন।

এদিকে বড়াইগ্রামের আহমেদপুরের বাসিন্দা সাইফুদ্দিন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। তিনি একটি ওষুধ কোম্পানিতে চাকরি করেন ও নাটোর শহরের হাফরাস্তা এলাকায় থাকেন।

এছাড়া সিংড়া উপজেলা নির্বাচন অফিসের ডাটা এন্ট্রি অপারেটর সজীব উদ্দিন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। তিনি উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তার সাইফুল আলম ছেলে। এর আগে তিনিও করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন।

এছাড়া সিংড়া উপজেলা খাদ্য কর্মকর্তা বিদ্যুৎ কুমার করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। তার বাড়ি রাজশাহীর মোহনপুর উপজেলায়। তবে সিংড়ায় খাদ্য বিভাগের কোয়ার্টারে থাকেন তিনি।

এদিকে প্রশাসনে কর্মরত বড়াইগ্রাম চৌগাছি এলাকার মোহাম্মদ ময়লাল। ছুটিতে বাড়িতে আসার পরে জ্বরে আক্রান্ত হলে নমুনা প্রদান করেন তিনি। আজ তার করোনা পজিটিভ এসেছে।

এছাড়া বড়াইগ্রামের বাহিমালী এলাকার যুবক আশরাফুল ইসলাম করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। তিনি পরমাণুতে চাকুরীর আবেদন করেছিলেন।

এদিকে বনপাড়া বাজারের মালিপাড়া এলাকার সালাউদ্দিন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। তিনি ব্যবসায়ী ফজলুর ছেলে। এর আগে তিনিও করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন। তার পরিবারের সকল সদস্যই নমুনা প্রদান করলে তাদের সদস্যের নমুনার ফলাফল এখনো স্থগিত রয়েছে।

এদিকে বড়াইগ্রামের রাজাপুর এলাকার নারায়ণপুর এলাকার যুবক আলমগীর হোসেন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। তিনিও পরমাণুতে চাকরির আবেদন করেছিলেন।

এদিকে লালপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডাক্তার ফারজানা করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। এছাড়া লালপুর থানার পুলিশ সদস্য মোস্তাক আহমেদ করোনা আক্রান্ত হয়েছেন।

অন্যদিকে লালপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য কর্মকর্তা নুরুজ্জামানের স্ত্রী ফাহিমা খাতুন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। এর আগে নুরুজ্জামানও আক্রান্ত হয়েছিলেন। গতকাল তার সন্তানের করোনা পজিটিভ আসে।

এছাড়া লালপুর মৎস্য বিভাগের আনোয়ার হোসেন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন।