নিউজ ডেস্ক: নাটোরে আরো ২৮ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন। এ নিয়ে জেলায় মোট করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৮৫৫ জন। এর মধ্যে বেশ কয়েকজন মারা গেছে। আর সুস্থ হয়েছেন অন্তত ৪৮৪ জন।

শনিবার (২৯ আগস্ট) ঢাকা থেকে প্রাপ্ত ফলাফলে ২১ জন ও রাজশাহী থেকে প্রাপ্ত ফলাফলে ৭ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন। এছাড়া আরো তিনজন ফলোআপ (আগেই করোনা আক্রান্ত ছিলেন, পরে আবার নমুনা পরীক্ষায়ও পজিটিভ) রোগীও শনাক্ত হয়েছেন। যাচাই বাছাই শেষে জানানো হবে কোন উপজেলায় কতজন আক্রান্ত হয়েছেন।

জানা গেছে, নাটোর ডিসি অফিসের বেলায়েত হোসেন, নাটোর পৌরসভার প্রধান সহকারী আব্দুস সালাম আজাদ, নাটোর কোর্টের রঞ্জন কুমার দাস, নির্বাচন অফিসের গাড়ী চালক সুলতান হোসেন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন।

এছাড়া শহরের নীচাবাজারের বনি আগরওয়াল, লালবাজারের বিজন দাস, আলাইপুরের অনন্ত কুমার শীল, কানাইখালীর সোহাগী রানী, কাপুড়িয়া পট্টির নিলিমা বসাক, বলারীপাড়ার শফিকুল ইসলাম, হাজরা নাটোরের পারভীন আক্তার, মাদরাসা মোড়ের সাজু ইসলাম, কান্দিভিটার আব্দুল হাই, উত্তর পটুয়াপাড়ার আনোয়ার হোসেন, রাজশাহী কলেজের ছাত্রী নওরীন ইশরাত করোনা আক্রান্ত হয়েছেন।।

অন্যদিকে নলডাঙ্গা উপজেলার হাপানিয়ার শফিকুল ইসলাম, বাগাতিপাড়া উপজেলার সাইদুর রহামন, বড়পাইরেলা গ্রামের মর্জিনা বেগম, সিংড়া উপজেলার হুহুলিয়া গ্রামের সাজ্জাদ হোসেন, মশিন্দা গ্রামের ফজল আলী ও ইলিয়াস কবীর, কাটাপুকুরিয়া গ্রামের অন্তরা শরিফা, হাতিয়ান্দহ এলাকার বিলকিস জাহান করোনা আক্রান্ত হয়েছেন।।

এছাড়া বড়াইগ্রাম উপজেলার কেচোয়াকোড়া গ্রামের এসএম আক্তারুজ্জামান, বনপাড়ার ক্লেমেন্ট কোস্তা, মহিষভাঙ্গার আলাউদ্দিন, বিকাশ রেবোরো, দাসগ্রামের মনিরুজ্জামান, রামাগাড়ী গ্রামের আক্তার হোসেন, দাড়িখৈইল গ্রামের সোহেল রানা করোনা আক্রান্ত হয়েছেন।