নিউজ ডেস্ক: না‌টো‌রে একজন ডাক্তার ১জন ফ‌লোআপসহ আ‌রো ১৪ জন ক‌রেনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্যে একজন দ্বিতীয়বার করোনা পজিটিভ হয়েছেন। এর আগে আরো সাতজন আক্রান্ত হয়েছেন। এনিয়ে জেলায় মোট আক্রান্ত ১১৬ জন ক‌রেনায় আক্রান্ত হয়েছেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নাটোরের সিভিল সার্জন ডাঃ মিজানুর রহমান।

শুক্রবার (১৯ জুন) দুপুরে এই তথ্য জানায়, বৃহস্পতিবার দিবাগত মধ্যরাতে ঢাকার ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট ল্যাব থেকে ১৩ জন আক্রান্তের রিপোর্ট আসে। এই তের জনের মদ্যে নাটোর শহরের হরিশপুর ও মোহনপুর এলাকায় রয়েছেন ১০জন এবং বাগাতিপাড়া উপজেলার একজন চিকিৎসকসহ ১৩ জনের করোনা পজেটিভ আসে। এই ঘটনায় বাগাতিপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে।

এর আগে নাটোরের সিভিল সার্জন ডাঃ মিজানুর রহমান জানান, রাত ৮ টার দিকে রামেকের করোনা ইউনিটের ভাইরোলজি বিভাগ ল্যাব টেস্টের পর ইমেইলে জেলায় ৭ জন করোনা পজেটিভ শনাক্ত করেন। এদের মধ্যে নাটোর সদরে দুই জনই নাটোর শহরের বাসিন্দা। বড়াইগ্রামে ৩ জনের মধ্যে ১ জন স্বাস্থ্য কর্মি। লালপুরে একজন ও বাগাতিপাড়ায় ১ জন স্বাস্থ্যকর্মী করোনা পজিটিভ হয়েছেন। এর মধ্যে বড়াইগ্রামে একজন স্বাস্থ্যকর্মী পুনরায় করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছেন। এই স্বস্থ্যকর্মী করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পরে একবার নেগেটিভ রেজাল্ট এসেছিল।