নিউজ ডেস্ক: বিএনপির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক সাবেক মন্ত্রী রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলুর সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে আসা দুই যুবদল কর্মীকে মারধর করেছে সন্ত্রাসীরা।

বুধবার বুধবার (৩০ সেপ্টেম্বর) দুপুরে শহরের আলাইপুরে দুলুর বাসায় দেখা করতে আসলে ওই দুই যুবদল নেতাকে মারধরের ঘটনা ঘটেছে। এ সময় এক যুবদল নেতার মোটরসাইকেল ভাঙচুর করা হয়।

এদিকে এই হামলার জন্য ক্ষমতাসীন দলের কর্মীদের দায়ী করে বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু জানান, আজ (বুধবার) তিনি একটি মামলায় হাজিরা দিতে নাটোরে এসেছিলেন। আদালতে হাজিরা শেষে তিনি শহরের আলাইপুরে তার বাসায় গেলে জেলার বিভিন্ন স্থান থেকে কিছু নেতাকর্মী তার সাথে সাক্ষাৎ করতে এসেছিল।

এ সময় তার বাসার অদূরে উপশহর গেটে গুরুদাসপুর থেকে আসা যুবদল নেতা পলাশকে বেধড়ক মারধর করেছে সন্ত্রাসীরা। একই সময় শহরতলী দিঘাপতিয়া থেকে আসা যুবদল নেতা আব্দুল কুদ্দুসের উপরে হামলা চালায় দুর্বৃত্তরা। আব্দুল কুদ্দুস পালিয়ে গেলে সন্ত্রাসীরা তার মোটরসাইকেলটি ভাঙচুর করে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়।

এই ঘটনার জন্য রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু প্রশ্ন রাখেন তাহলে তিনি কি তাঁর নিজ বাসায় অবস্থান করতে পারবেন না? তিনি এ ঘটনার নিন্দা ও দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান। এ ঘটনায় পর তিনি ঢাকায় চলে যান। আহত পলাশ গুরুদাসপুর উপজেলা যুবদলের আহবায়ক কমিটির সদস্য। তাকে শহরের একটি বেসরকারি হাসপাতলে ভর্তি করা হয়েছে ।

এ বিষয়ে নাটোর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহাঙ্গীর আলমের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করলেও তার বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।