নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রস্তাবিত ‘পঞ্চগড় এক্সপ্রেস’ ট্রেনের নাটোরে স্টপেজ প্রসঙ্গে প্রধান অতিথি নাটোর-২ আসনের সংসদ সদস্য ও নাটোর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম শিমুল বলেছেন, নাটোর স্টেশনে ‘পঞ্চগড় এক্সপ্রেস’ ট্রেনের স্টপেজের ব্যাপারে আপ্রাণ চেষ্টা করছি।

বুধবার (২২ মে) রাজধানীর শ্যামলীস্থ হিল টাউন কনভেনশন সেন্টারে পবিত্র মাহে রমজান উপলক্ষে নাটোর সদর ও নলডাঙ্গা উপজেলা সমিতি ঢাকা’র আয়োজনে দোয়া, ইফতার মাহফিল ও নবনির্বাচিত সংসদ সদস্য, উপজেলা চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যানদের সংবর্ধনা শেষে অনুষ্ঠানে উপস্থিত সাংবাদিক মো. কামাল হোসেন ‘পঞ্চগড় এক্সপ্রেস’ এর নাটোরে স্টপেজ না দেয়া নিয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করলে রেলপথ মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ও নাটোর সদরের এমপি শফিকুল ইসলাম শিমুল এই মন্তব্য করেন।

একই অনুষ্ঠান শেষে নাটোর সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শরিফুল ইসলাম রমজান পঞ্চগড়-ঢাকা-পঞ্চগড় রুটের প্রস্তাবিত ‘পঞ্চগড় এক্সপ্রেস’ ট্রেনের নাটোরে স্টপেজ না দিলে নাটোরবাসীর যে কোনো আন্দোলনে একাত্বতা প্রকাশ করে রেল লাইনে বসে পড়ার ঘোষণা দিয়েছেন।

এর আগে ঢাকায় বসবাসকারী দুই শতাধিক নাটোর সদর ও নলডাঙ্গা উপজেলাবাসীর অংশ গ্রহণে এই দোয়া, ইফতার মাহফিল ও সংবর্ধনা সভায় নাটোর সদর ও নলডাঙ্গা উপজেলা সমিতি ঢাকা’র সভাপতি ড. নুরুন্নবী মৃধার সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন নাটোর-২ আসনের সংসদ সদস্য ও নাটোর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম শিমুল।

এসময় অনুষ্ঠানে নাটোর-২ আসনের সংসদ সদস্য ও নাটোর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম শিমুল, নাটোর সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শরিফুল ইসলাম রমজান, ভাইস চেয়ারম্যান শেখ কামরুন্নাহার কাজল ও আব্দুল্লাহ আল সাকিব বাকীকে সংবর্ধনা ও ক্রেস্ট প্রদান করা হয়।

প্রসঙ্গত, আগামী ২৫ মে পঞ্চগড়-ঢাকা-পঞ্চগড় রুটে চালু হচ্ছে বিরতিহীন ‘পঞ্চগড় এক্সপ্রেস’। ট্রেনটি বিরতিহীন নামে চললেও স্টপেজ দেওয়া হয়েছে মধ্যবর্তী দিনাজপুর, ঠাকুরগাঁও পঞ্চগড়সহ ৩টি স্টেশনে। কিন্তু ঐতিহ্যবাহী নাটোর জেলা শহরের উপর দিয়ে গেলেও এই ট্রেনের স্টপেজ দেওয়া হয়নি। ফলে ‘পঞ্চগড় এক্সপ্রেস’ ট্রেনের স্টপেজের দাবিতে ফুঁসে উঠছে নাটোরবাসী। তবে রেলপথ মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় কমিটির সদস্য সদর আসনের সংসদ সদস্য শফিকুল ইসলাম শিমুল এবং পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের জেনারেল ম্যানেজার শহিদুল ইসলামের বাড়ি নাটোরের পালপাড়ায় হওয়ায় নাটোর স্টেশন সুবিধা বঞ্চিত হবে এমনটি আশা করছে না নাটোরবাসী।

এব্যাপারে বুধবার রাতে নাটোর সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক) এর সাবেক সভাপতি রেজাউল করিম রেজা তার ব্যক্তিগত ফেসবুক পেজে একটি স্ট্যাটাস দেন। সেখানে রেজাউল করিম রেজা লেখেন ‘২৫ মে থেকে চালু হচ্ছে বিরতিহীন পঞ্চগড় এক্সপ্রেস। ট্রেনটি দিনাজপুর, ঠাকুরগাঁও থামলেও থামছে না নাটোরে। নাটোরবাসি হিসেবে আপনি কি একমত?

এই স্ট্যাটাসে শংকর দাস নামে একজন লেখেছেন, রেজা্উল ভাই অনেক অনেক বিষয় নিয়ে আমরা রাস্তায় দাঁড়িয়েছি আসুন এ নিয়ে আবারো আন্দোলন করি’

বুলবুল আহমেদ মন্তব্য করেছেন, স্টপেজের জন্য নাটোর বাসীকে আন্দোলন করতে হবে। আন্দোলনের কোন বিকল্প নেই। আর এই আন্দোলনে সব সময় থাকবো ভাই।

নাটোর সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক) এর সাবেক সভাপতি রেজাউল করিম রেজা বলেন, রাজনৈতিক সদিচ্ছা না হলে নাটোরবাসীর এই দাবি পুরন হবে না। আমরা বিরতিহীন ট্রেনটির স্টপেজ এর জন্য দরকার হলে আন্দোলনে নামবো। আমরা বিশ্বাস করি নাটোরের স্বার্থে এই আন্দোলনে আমরা সবাইকে পাবো।

এর আগে নাটোর স্টেশনে ‘পঞ্চগড় এক্সপ্রেস’ ট্রেনের স্টপেজ চাই শিরোনামে স্ট্যাটাস দিয়ে মুক্তিযুদ্ধের শহিদ স্মুতি পুরস্কারপ্রাপ্ত সাংবাদিক মো. কামাল হোসেন বলেন, উত্তরাঞ্চলের মধ্যে ঐতিহ্যবাহী নাটোর স্টেশনে ট্রেনের যাত্রী সবচেয়ে বেশি। অথচ নাটোরবাসীকে বারবার বঞ্চিত করা হচ্ছে। পঞ্চগড়-ঢাকা-পঞ্চগড় রুটের বিরতিহীন ‘পঞ্চগড় এক্সপ্রেস’ নাটোরে স্টপেজ না দিলে, তা নাটোরবাসী মেনে নেবে না। প্রয়োজনে দুর্বার আন্দোলন গড়ে তোলে এই বঞ্চনার জবাব দেবে নাটোরবাসী।