নিজস্ব প্রতিবেদক: নাটোরে শোভাযাত্রায় পুলিশ বিভাগ, ফায়ার সার্ভিস এবং স্বাস্থ্য বিভাগ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের অংশ গ্রহণে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা ও আলোচনা সভার মধ্য দিয়ে পুলিশ সার্ভিস সপ্তাহ পালিত হয়েছে। ৯৯৯ লেখা সংবলিত পুলিশের গাড়ি, ফায়ার সার্ভিসের গাড়ি ও অ্যাম্বুলেন্স শোভাযাত্রায় অংশগ্রহণ করে।

মঙ্গলবার (২৯ জানুয়ারি) এ উপলক্ষে বেলা ১১টার দিকে নাটোর পুলিশ সুপারের কার্যালয়ের সামনে থেকে পুলিশ সুপার সাইফুল্লাহ আল মামুনের নেতৃত্বে এক বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের করা হয়। শোভাযাত্রাটি শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে নাটোর সদর থানা প্রাঙ্গণে গিয়ে শেষ হয়। পরে সেখানে এক আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।

আলোচনা সভায় বক্তব্য আরো রাখেন জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট সাজেদুর রহমান খান, নাটোর পৌরসভার মেয়র উমা চৌধুরী জলি, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) আবুল হাসনাত, সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কাজী জালাল উদ্দিন, গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সৈকত হাসান প্রমুখ।

এসময় বক্তারা বলেন, পুলিশ জনগণের সেবক। কোনোমতেই যেন সাধারণ মানুষ পুলিশের সেবা থেকে বঞ্চিত না হয়। সেদিকে খেয়াল রেখে সব পুলিশ সদস্যের প্রতি নির্দেশ দেওয়া হয়। এছাড়াও কোনো পুলিশ সদস্য দ্বারা সাধারণ মানুষ যেন হয়রানির শিকার না হয়, সেদিকেও খেয়াল রাখতে হবে।

পুলিশ সুপার সাইফুল্লাহ আল মামুন জানান, নাটোর হবে দাদন মুক্ত জেলা। এখানে কেউ দাদন ব্যবসা করতে পারবে না, কারণ দাদন সমাজের মানুষকে নিঃস্ব করে দেয়। পুলিশের কাছে এসে কেউ হয়রানির শিকার হবে না। পুলিশকে ভয় করার কিছু নেই। কারণ ভালো মানুষ পুলিশকে ভয় পায়না পুলিশকে ভয় পায় খারাপ মানুষ। জনগণ পুলিশের কাছে নির্বিঘ্নে সেবা পাবে।

তিনি আরো বলেন, পুলিশ সেবা সপ্তাহ উপলক্ষে ৯৯৯-এর সেবা সম্পর্কে জনগণকে অবহিত করতে সচেতনতামূলক শোভাযাত্রা বের করা হয়। ৯৯৯ এই নম্বরে (চার্জ ছাড়া) ফোন করলে মানুষ পুলিশ, অ্যাম্বুলেন্স এবং ফায়ার সার্ভিসের সেবা পাবে। এছাড়াও যেকোনো বিপদ আপদ ও সমস্যায় ৯৯৯ এ ফোন করলে কাঙ্ক্ষিত সেবা পাবে জনগণ।