নিজস্ব প্রতিবেদক: নাটোর-১ আসনে যৌথভাবে বিএনপির মনোময়ন পেয়েছেন তাইফুল ইসলাম টিপু ও অধ্যক্ষ কামরুন নাহার শিরীন। তাইফুল ইসলাম টিপু বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সহ দপ্তর সম্পাদক। অধ্যক্ষ কামরুন নাহার শিরীন লালপুর উপজেলা বিএনপির সদস্য ও সাবেক ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী ফজলুর রহমান পটলের স্ত্রী। তাদেরকে আওয়ামী লীগ প্রার্থী শহিদুল ইসলাম বকুলের সাথে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে হবে। নাটোর-১ আসনটি লালপুর ও বাগাতিপাড়া উপজেলা নিয়ে গঠিত। এই আসনে সবাই নতুন প্রার্থী। প্রথমবারের মতো দলীয় মনোনয়নে ভোটে লড়াই করবেন তারা।

অপরদিকে নাটোর-২ আসনে রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু ও সাবিনা ইয়াসমিন ছবি বিএনপির মনোনয়ন পেয়েছেন।দুলু বিএনপির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও নাটোর জেলা বিএনপির সভাপতি। ছবি নাটোর জেলা বিএনপির সহ সভাপতি। তিনি ২০০৮ সালে এই আসন থেকে নির্বাচন করে সাবেক ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী আহাদ আলী সরকারের কাছে হেরে যান। এবার আওয়ামী লীগ প্রার্থী শফিফুল ইসলাম শিমুলের সাথে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে হবে তাদেরকে। নাটোর-২ আসনটি সদর ও নলডাঙ্গা উপজেলা নিয়ে গঠিত। শিমুল বতর্মান এমপি, ‍তিনি ২০১৪ সালে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। আর দুলু ১৯৯৬ ও ২০০১ সালে এমপি নির্বাচিত হয়েছিলেন এবং ২০০১ সালে বিএনপি জোট সরকারের এলজআরডি ও ভূমি উপমন্ত্রী হিসাবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

এদিকে নাটোর-৩ আসনে যৌথভাবে মনোনয়ন পেয়েছেন দাউদার মাহমুদ, আনোয়ারুল ইসলাম আনু। এই আসনে তারা নতুন প্রার্থী। তাদেরকে আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলকের বিরুদ্ধে লড়তে হবে। এই আসনটি সিংড়া উপজেলা নিয়ে গঠিত। পলক এই আসন থেকে ২০০৮ ও ২০১৪ সালে এমপি নির্বাচিত হয়েছেন।

এছাড়া নাটোর-৪ আসনে মনোনয়ন পেয়েছেন আব্দুল আজিজ। তিনি সাবেক প্রতিমন্ত্রী আব্দুল কুদ্দুসের বিরুদ্ধে লড়বেন। তিনি নতুন প্রার্থী। এই আসনটি গুরুদাসপুর ও বড়াইগ্রাম উপজেলা নিয়ে গঠিত।

প্রসঙ্গত, সোমবার (২৬ নভেম্বর) বেলা সোয়া ৩টার দিকে গুলশানের রাজনৈতিক কার্যালয় থেকে কারাবন্দি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে দিয়ে মনোনয়ন চিঠি ইস্যু কার্যক্রম শুরু করেছে বিএনপি।

তফসিল অনুসারে, আগামী ৩০ ডিসেম্বর একাদশ সংসদ নির্বাচনে ভোট হবে। মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার শেষ দিন ২৮ নভেম্বর, ২ ডিসেম্বর যাচাই-বাছাই ও মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন নির্ধারিত রয়েছে ৯ ডিসেম্বর।