নিজস্ব প্রতিবেদক: নাটোরে ৫টি উপজেলার প্রথম ধাপে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভোটগ্রহণের জন্য কেন্দ্রে কেন্দ্রে নির্বাচন সামগ্রী পাঠানো হয়েছে। ৪৩৭টি ভোটকেন্দ্র ও সার্বিক আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় দেড় হাজার পুলিশ সদস্য এবং ৫ হাজার ২৪৪ জন আনসার সদস্য দায়িত্ব পালন করবেন। এছাড়া ১৫০ টি ঝুকিপূর্ণ কেন্দ্রে বাড়তি নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

শনিবার (৯ মার্চ) বেলা সাড়ে ১১টায় নির্বাচন সামগ্রী বিতরণ শুরু করেন উপজেলা নির্বাচন অফিসার। এ সময় সিংড়া,গুরুদাসপুর, বড়াইগ্রাম, লালপুর ও বাগাতিপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয় থেকে ৪৩৭টি কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার নিরাপত্তার জন্য দুজন পুলিশ, আনসার সদস্য নিয়ে নির্বাচন সামগ্রী সিল, প্যাড, অমূচনীয় কালি, ব্যালট পেপার, ব্যালট বাক্স বুঝে নিয়ে কেন্দ্রে কেন্দ্রে নিয়ে যান।

এবারের নির্বাচনে নাটোরের ৫টি উপজেলায় ৪৩৭টি কেন্দ্রে ১০ মার্চ ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনে প্রতিটি কেন্দ্রে দুজন পুলিশ, ঝুকিপূর্ণ কেন্দ্রে অস্ত্রসহ ৩ জন এবং আনসার সদস্যরা থাকবেন। এছাড়া প্রতিটি উপজেলায় দুই প্লান্টুন বিজিবি, ১৬ জন করে র‌্যাব সদস্য ষ্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে কাজ করবেন। এছাড়াও একজন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট এর নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত দায়িত্বে নিয়োজিত থাকবেন।

নাটোরের ৫টি উপজেলায় ৪৩৭টি কেন্দ্রের মধ্যে লালপুরে ৮৪ টি, বাগাতিপাড়ায় ৪৮ টি, সিংড়ায় ১৩৩ টি, বড়াইগ্রামে ১০০ টি এবং গুরুদাসপুরে ৭২ টি।

এর মধ্যে মোট ঝুকিপূর্ণ কেন্দ্রের ১৫০ টি এর মধ্যে ঝুকিপূর্ণ কেন্দ্রের সংখ্যা লালপুর ৫১ টি, বাগাতিপাড়া ১৮ টি, সিংড়া ৪৫ টি, বড়াইগ্রাম ২৫ টি, গুরুদাস্পুর ১৮ টি।

পুলিশ সুপার সাইফুল্লাহ আল মামুন জানান, সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোটাররা যাতে নির্বিঘ্নে ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারেন, তা নিশ্চিত করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, সিংড়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে লড়ছেন পাঁচজন। এর মধ্যে নৌকা প্রতীক নিয়ে সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম শফিক, আওয়ামী লীগ থেকে স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবেক জিএস আদেশ আলী সরদার, ওয়ার্কার্স পার্টির মিজানুর রহমান, জাকের পার্টির মাহফুজুর রহমান, স্বতন্ত্র হিসেবে গোলাম কবির চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

অন্যদিকে গুরুদাসপুর উপজেলা চেয়ারম্যান পদে তিনজন অংশ নিচ্ছেন। এর মধ্যে রয়েছেন নৌকা মার্কার প্রার্থী ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ জাহিদুল ইসলাম, স্বতন্ত্র হিসেবে এমদাদুল হক মোহাম্মদ আলী ও আনোয়ার হোসেন।

এছাড়া বড়াইগ্রাম উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা মার্কার নিয়ে জেলা আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যাবিষয়ক সম্পাদক ও ডা. সিদ্দিকুর রহমান পাটোয়ারী এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মোয়াজ্জেম হোসেন বাবলু প্রতিদ্বন্দ্বিতায় করছেন।

অন্যদিকে লালপুর উপজেলা চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত ইসাহাক আলী এবং জাসদ থেকে আব্দুল হালিম প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

এছাড়া বাগাতিপাড়ায় আওয়ামী লীগ থেকে উপজেলা নির্বাচনে নৌকা মার্কা নিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সেকেন্দার আলী ও একই দল থেকে অহিদুল ইসলাম গোকুল স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

প্রথম ধাপে দেশের ৮৩টি উপজেলার মধ্যে রোববার ৫টি উপজেলা পরিষদের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। রোববার সকাল ৮টা থেকে ভোটগ্রহণ শুরু হয়ে চলবে বিকাল ৪টা পর্যন্ত।