নিজস্ব প্রতিবেদক: নাটোরে স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস দিনব্যাপী বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে পালিত হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৬ মার্চ) সকালে স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে নাটোরের সিংড়ায় কেন্দ্রীয় স্মৃতিসৌধে দলীয় নেতা-কর্মীদের নিয়ে পুস্পস্তবক অর্পণ করেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। পরে শহীদদের আত্মার শান্তি কামনায় নীরবতা পালন করা হয়। এসময় উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুষান্ত কুমার মাহাতো, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এডভোকেট অহিদুর রহমান শেখ, সিংড়া থানার ওসি মনিরুল ইসলামসহ উপজেলা আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

সকালে সিংড়া কোর্ট মাঠে উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে মহান স্বাধীনতা দিবস পালন উপলক্ষে-স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীরা এভাবেই মুক্তিযুদ্ধের প্রতিকী চিত্রকর্ম উপস্থাপন করেন।

অপরদিকে প্রত্যুষে ৩১ বার তোপধ্বনির মধ্য দিয়ে নাটোরে দিবসটির সূচনা করা হয়। সূর্যোদয়ের সাথে সাথে শহরের মাদ্রাসা মোড়ে স্বাধীনতা স্মৃতিস্তম্ভে জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, জেলা আওয়ামী লীগসহ সর্বস্তরের মানুষ পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।

সকাল ৮টায় শঙ্কর গোবিন্দ চৌধুরী স্টেডিয়ামে জেলা প্রশাসনের আয়োজনে আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় পতাকা উত্তোলন ও কুচকাওয়াজে অভিবাদন গ্রহণ করেন জেলা প্রশাসক মো. শাহরিয়াজ ও পুলিশ সুপার সাইফুল্লাহ আল মামুন। এসময় বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছাত্র-ছাত্রীরা ডিসপ্লে প্রদর্শন করে।

এছাড়াও দিবসটি উপলক্ষে আওয়ামী লীগ শহরের কাঁদিভিটা দলীয় কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন এবং বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করছে। এছাড়া ছাতনী শহীদ স্মৃতিসৌধে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা ও আওয়ামী লীগ।

অপরদিকে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে বীর মুক্তিযোদ্ধা ও তাদের পরিবারকে সংবর্ধনা দিয়েছে নাটোর জেলা প্রশাসন। দুপুরে স্থানীয় কানাইখালি মাঠে আয়োজিত অনুষ্ঠানে জেলা প্রশাসক মোহাম্মাদ শাহরিয়াজের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন, সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য রত্না আহমেদ,জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সাজেদুর রহমান খান, পুলিশ সুপার সাইফুল্লাহ আল মামুন, পৌরসভার মেয়র উমা চৌধুরী জলি, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শরিফুল ইসলাম রমজান, জেলা জজ কোর্টের পিপি অ্যাডভোকেট সিরাজুল ইসলাম প্রমুখ।

এছাড়া বড়াইগ্রাম উপজেলা প্রশাসন আয়োজিত মুক্তিযোদ্ধা সংবর্ধনায় ইউএনও আনোয়ার পারভেজের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি সাবেক প্রতিমন্ত্রী অধ্যাপক আব্দুল কুদ্দুস এমপি। বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন বনপাড়া পৌর মেয়র কেএম জাকির হোসেন, বড়াইগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা দিলীপ কুমার দাস, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা ইকবাল আহমেদ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল জলিল প্রামাণিক, সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট মিজানুর রহমান, যুগ্ন সম্পাদক প্রভাষক মোয়াজ্জেম হোসেন বাবলু প্রমুখ।

অন্যদিকে বনপাড়া পৌরসভার উদ্যোগে মেয়র কেএম জাকির হোসেনের নেতৃত্বে ও বড়াইগ্রাম পৌরসভার উদ্যোগে মেয়র আব্দুল বারেক সরদারের নেতৃত্বে পৃথক পৃথক র‌্যালি, আলোচনা সভা ও পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়েছে।

এছাড়া বাগাতিপাড়ায় সংসদ সদস্য শহিদুল ইসলাম বকুল স্থানীয় স্মৃতিস্তম্ভে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। এছাড়া মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা দেন শহিদুল ইসলাম বকুল এমপি।