নিজস্ব প্রতিবেদক: নাটোরে ৪টি আসনে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে উপলক্ষে নাটোর সদর উপজেলার ভোট কেন্দ্রগুলোর প্রিজাইডিং অফিসার ও দায়িত্বরত নিরাপত্তা কর্মীদের কাছে ব্যালট পেপারসহ নির্বাচন সামগ্রী হস্তান্তর করা হয়েছে। এদিকে নাটোর সদরের ১ লাখ ১৯ হাজার ৩২ জন পুরুষ ভোটার ও ১ লাখ ২১ হাজার ৩৯১ নারী ভোটার প্রস্তুত রয়েছে ভোট প্রদানে।

শনিবার (২৯ ডিসেম্বর) বেলা ১২ টার দিকে সদর উপজেলার ভোট কেন্দ্রগুলোর প্রিজাইডিং অফিসার ও দায়িত্বপ্রাপ্ত নিরাপত্তা কর্মীদের কাছে সহকারী রিটার্নিং অফিসার ও সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জেসমিন আকতার বানু এসব সামগ্রী হস্তান্তর করেন। এ সময় সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কাজী জালাল উদ্দিনসহ সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন।

জানা গেছে, সদর ও নলডাঙ্গা উপজেলার ১২টি ইউনিয়ন ও ২টি পৌরসভা নিয়ে গঠিত এ আসনে মোট ভোটার সংখ্যা ৩ লাখ ৪৩ হাজার ৭১৬ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১ লাখ ৭০ হাজার ৮৩৮ জন ও নারী ভোটার ১ লাখ ৭২ হাজার ৮৭৮ জন। নাটোর সদরে পুরুষ ভোটার ১ লাখ ১৯ হাজার ৩২ জন ও নারী ভোটার ১ লাখ ২১ হাজার ৩৯১ জন। আর নলডাঙ্গায় পুরুষ ভোটার ৫১ হাজার ৮০৬ জন ও নারী ভোটার ৫১ হাজার ৪৮৭ জন।

এছাড়া জেলার ৮টি উপজেলা থেকে জেলার ৫৬৬টি কেন্দ্রে নির্বাচনী সামগ্রী বিতরণ করেছেন স্ব-স্ব উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তারা।

এদিকে নাটোরে চারটি আসনে ভোট কেন্দ্র রয়েছে মোট ৫৬৬টি। এর মধ্যে বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থা নাটোর-১ (লালপুর-বাগাতিপাড়া) আসনে ৩৪টি, নাটোর-২ (সদর-নলডাঙ্গা) আসনে ৪২টি, নাটোর-৩ (সিংড়া) আসনে ৩০টি এবং নাটোর-৪ (গুরুদাসপুর-বড়াইগ্রাম) আসনে মোট ৪৪টি ভোট কেন্দ্রকে ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। তবে চারটি আসনের মধ্যে ৫০টিকে সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। এর মধ্যে নাটোর-১ (লালপুর-বাগাতিপাড়া) এবং নাটোর-২ (সদর-নলডাঙ্গা) আসনের মোট ৩০টি কেন্দ্রে বেশি সহিংসতার ঝুঁকি রয়েছে।