নিজস্ব প্রতিবেদক: নাটোর জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও নাটোর-৪ আসন থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য আব্দুল কুদ্দুস বলেছেন, ‘আমি এক লক্ষ টাকা দিবো, আমার ছোট ভাই শিমুল এক লক্ষ টাকা দিবে, বকুল দিবে এক লক্ষ টাকা। আগেও আমরা দুই লক্ষ করে টাকা দিয়েছি, আবারো আমরা আরো এক লক্ষ করে টাকা দিবো, তবু আগামি ৩ মাসের মধ্যে নাটোর সমিতির নিজস্ব ঠিকানা চাই।

শুক্রবার (১ ফেব্রুয়ারি) রাজধানী ঢাকার মোহাম্মাদপুরে সরকারি শারীরিক শিক্ষা কলেজ মাঠে সম্প্রীতির নাটোর নামে দিনব্যাপী জমজমাট ‘নাটোর উৎসব ২০১৯ অনুষ্ঠানে নাটোর-৪ আসন থেকে পাচঁবারের নির্বাচিত এমপি আব্দুল কুদ্দুস এসব কথা বলেন।

আব্দুল কুদ্দুস বলেন, আমরা আশা করেছিলাম, নাটোর সমিতি এই শীতে মধ্যে নাটোরের দরিদ্র মানুষদের সাহায্য করবে। কিন্তু কেউ এগিয়ে এলো না, এখন আপনারা বলেন নাটোর সমিতির প্রয়োজন আছে কিনা? যদি প্রয়োজন থাকে তাহলে আগামি তিন মাসের মধ্যে সমিতির অফিস চাই। তিনি আরো বলেন, এখানে নাচ-গান না করে যদি এই খরচে স্থায়ী ঠিকানা করা যেত তা হরে ভাল হতো।

নাটোর জেলা সমিতি ঢাকার আয়োজনে ও প্রাণ-আরএফএল গ্রুপের পৃষ্ঠপোষকতায় নাটোর উৎসব-২০১৯ এর আনন্দঘন উদযাপন করা হয়েছে। সকালে দিনব্যাপী উৎসবের শুরুতে বেলুন উড়িয়ে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করা হয়।

এই উৎসবে নাটোর জেলা সমিতি ঢাকার সভাপতি আহসান খান চৌধুরীর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এমপি, বিশেষ অতিথি ছিলেন নাটোর-৪ আসনের সংসদ সদস্য অধ্যাপক আব্দুল কুদ্দুস, নাটোর-১ আসনের সংসদ সদস্য শহিদুল ইসলাম বকুল প্রমুখ।

এছাড়া নাটোর জেলা সমিতি ঢাকার সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সামাদ মোল্লা, যুব মহিলালীগের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি কোহেলী কুদ্দুস মুক্তি, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা রতন কুমার সাহা, ছাত্রলীগের সাবেক কেন্দ্রীয় নেতা শরিফুল হাসান ফারুক, ফজলুল হকসহ সমিতির কর্মকর্তাবৃন্দ, সরকারি উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তাসহ সরকারি ও বেসরকারি বিভিন্ন দপ্তরে কর্মরত চাকুরিজীবী, ব্যবসায়ীসহ নাটোরের বিভিন্ন স্তরের পেশাজীবীরা অংশ নেন সম্প্রীতির নাটোর নামের প্রাণের এই উৎসবে।

অন্যদিকে উৎসবে আরো উপস্থিত ছিলেন নাটোর জেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি মাহফুজ আলম মুনী, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হাকিম, নাটোর জেলা সাংবাদিক সমিতি ঢাকার সভাপতি এমদাদুল হক, মুক্তিযুদ্ধের শহীদ স্মৃতি পুরস্কার প্রাপ্ত সাংবাদিক, প্রতিদিনের বাংলা সংবাদের প্রকাশক ও সম্পাদক মো. কামাল হোসেন ও নাটোরের সাংবাদিক এমএম আরিফুল ইসলাম প্রমুখ।

নাটোর উৎসবে বিভিন্ন বয়সীদের জন্য আয়োজিত নানারকম খেলাধূলার পুরস্কার বিতরণ, নাটোরের শিল্পীদের অংশগ্রহণে নাটোরের গান, ইতিহাস-ঐতিহ্য তুলে ধরে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান শেষে সমাপ্তি ঘোষণা করেন নাটোর সমিতির সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সালাম মোল্লা।

এছাড়া এই উৎসব উপলক্ষে প্রাণ কোম্পানীর বেশ কয়েকটি স্টলসহ বিভিন্ন কোম্পানীর বেশ কয়েকটি স্টল ছিল উৎসব প্রাঙ্গণে।