নাদিয়া মুরাদ। পুরো নাম নাদিয়া মুরাদ বাসি তাহা। ইরাকের এক ইয়াজিদি কৃষক পিতামাতার সন্তান তিনি। তাকে জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট বন্দি করেছিল। ওই সময়ে তাকে ধর্ষণ করা হয়েছে। সেখান থেকে রক্ষা পেয়েছেন নাদিয়া মুরাদ। তারপর যৌন সহিংসতার বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়িয়েছেন। আর তার স্বীকৃতি হিসেবে পেয়ে গেলেন বিশ্বের সবচেয়ে দামী পুরস্কার শান্তিতে নোবেল।

তিনিই প্রথম ইরাকি এমন বিরল সম্মানে ভূষিত হলেন। বর্তমানে তিনি জার্মানিতে অবস্থান করছেন। ইরাকের ইয়াজিদি সম্প্রদায়ের এই যুবতী এখন একজন মানবাধিকার কর্মী। তিন মাসের জন্য ইসলামিক স্টেটের জঙ্গিরা তাকে অপহরণ করে আটকে রেখেছিল। এবার ডেনিস মুকওয়েজের সঙ্গে যৌথভাবে শান্তিতে নোবেল পুরস্কার পেলেন তিনি। তারা যৌন সহিংসতাকে যুদ্ধাস্ত্র হিসেবে ব্যবহার বন্ধের জন্য এবং সশস্ত্র লড়াইয়ে যৌন সহিংসতা বন্ধের জন্য কাজ করছেন।