নিউজ ডেস্ক: মজিবর রহমান মজনুকে সভাপতি এবং রাগেবুল আহসান রিপুকে সাধারণ সম্পাদক করে ৭১ সদস্যবিশিষ্ট বগুড়া আওয়ামী লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে।

সোমবার (২৩ নভেম্বর) আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের এ কমিটির অনুমোদন দেন। অনুমোদিত এই কমিটিতে নবীন-প্রবীণের সমন্বয়ে ৬৮ জনের নাম ও পদবি উল্লেখ করা হয়েছে। বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মজিবর রহমান মজনু পূর্ণাঙ্গ কমিটি পাওয়ার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

কমিটির ১১ জন সহ-সভাপতি হলেন, ডা. মকবুল হোসেন, তোফাজ্জল হোসেন দুলু, টি জামান নিকেতা, টি এম মুসা পেস্তা, অ্যাডভোকেট আব্দুল মতিন, আবুল কালাম আজাদ, অ্যাডভোকেট মকবুল হোসেন মুকুল, অ্যাডভোকেট রেজাউল করিম মন্টু, অ্যাডভোকেট আমান উল্লাহ, প্রদীপ কুমার রায় ও মিজানুর রহমান সেলিম।

তিন জন যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হলেন, মঞ্জুরুল আলম মোহন, আসাদুর রহমান দুলু ও সাগর কুমার রায়।

এছাড়া আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট তবিবর রহমান তবি, কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক মনসুর রহমান মুন্নু, তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট সাইফুল ইসলাম, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক শাহ্ আখতারুজ্জামান ডিউক, দফতর সম্পাদক আল রাজি জুয়েল, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক আবদুল খালেক বাবলু, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক সুলতান মাহমুদ খান রনি, বন ও পরিবেশ সম্পাদক শেরিন আনোয়ার জর্জিস, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সম্পাদক অ্যাডভোকেট শফিকুল আলম আক্কাস, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক নাসরিন রহমান সীমা, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক আনিসুজ্জামান মিন্টু, শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক তপন চক্রবর্তী, শ্রমিক সম্পাদক রুহুল মোমিন তারিক, সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক এসএম শাহজাহান এবং স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক হন এবিএম জহুরুল হক বুলবুল।

তিন সাংগঠনিক সম্পাদক হলেন, শাহরিয়ার আরিফ ওপেল, অ্যাডভোকেট জাকির হোসেন নবাব ও অধ্যক্ষ শাহাদত আলম ঝুনু।

উপ-দফতর সম্পাদক করা হয়েছে মাশরাফি হিরোকে এবং কোষাধ্যক্ষ করা হয়েছে মাসুদুর রহমান মিলনকে। তবে কমিটিতে যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক, শিক্ষা ও মানবসম্পদ বিষয়ক সম্পাদক এবং উপ-প্রচার ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক পদ ফাঁকা রাখা হয়েছে।

এছাড়া এই কমিটিতে ৩২ জন সদস্য হলেন- হাবিবুর রহমান এমপি, সাহাদারা মান্নান এমপি, ম. আবদুর রাজ্জাক, কাশেম ফকির, অ্যাডভোকেট সাইফুল ইসলাম, হেলাল কবিরাজ, তৌহিদুর রহমান মানিক, আজিজুল হক, আসালত জামান, অ্যাডভোকেট গোলাম ফারুক, আবু সুফিয়ান শফিক, অ্যাডভোকেট নরেশ মুখার্জ্জি, মাহবুবুল আলম বুলু, আলমগীর হোসেন, অধ্যক্ষ টি আই নুরুজ্জামান তারেক, আশরাফুল ইসলাম মন্টু, অধ্যক্ষ শামসুল আলম জয়, অ্যাডভোকেট শফিকুল ইসলাম ফারুক, আনোয়ার হোসেন, তৌফিকুর রহমান বাপ্পি, রাহুল হাজী, ইমরান হোসেন রিমন, অধ্যক্ষ আহসানুল হক, জাহাঙ্গীর আলম নান্নু আকন্দ, তৌহিদুল করিম কল্লোল, সাঈদ ফকির, ফারুক খান লিটন, জাহিদ হোসেন রতন, রুমানা আজিজ রিংকী, মো. আব্দুল্লাহ আল ফারুক, মো. আলমগীর হোসেন স্বপন ও মাহবুবা নাসরিন রূপা।

এই কমিটিতে ছাত্রলীগ, যুবলীগ ও মহিলা আওয়ামী লীগের সঙ্গে যুক্ত থাকা তরুণ কিছু নেতাকর্মী স্থান পেয়েছেন। এরমধ্যে রাজনীতির বাইরে রয়েছেন মরহুম ভাষাসৈনিক গাজীউল হকের ছেলে রাহুল গাজী ও ভাণ্ডারী পরিবারের ছেলে তৌফিকুর রহমান বাপ্পী ভাণ্ডারী।

আওয়ামী লীগের রাজশাহী বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক এসএম কামাল হোসেন জানান, বগুড়ার কমিটি ৭৫ সদস্য বিশিষ্ট হবে। সেখানে পর্যায়ক্রমে আরও কিছু নাম অনুমোদন দেয়া হবে। এছাড়াও জেলার চার উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতির নাম সদস্য পদে থাকলেও তাদের নাম বাদ দেয়া হবে।

প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালের ৭ ডিসেম্বর বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনের মাধ্যমে সভাপতি হিসেবে মজিবর রহমান মজনু, সহসভাপতি টি জামান নিকেতা, সাধারণ সম্পাদক রাগেবুল আহসান রিপু, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক যথাক্রমে মঞ্জুরুল আলম মোহন, আসাদুর রহমান দুলু, সাগর কুমার রায় ও কোষাধ্যক্ষ মাসুদুর রহমান মিলনের নাম ঘোষণা করা হয়। এই সম্মেলনের প্রায় এক বছর পর পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হলো।