ছবি: প্রতীকী

নিউজ ডেস্ক: নাটোরের বড়াইগ্রামে ১৪ বছরের কিশোরী ভাতিজিকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে মোজাম্মেল হক (৫০) নামের এক ব্যক্তিকে আটক করেছে পুলিশ। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বড়াইগ্রাম থানা পুলিশ পরিদর্শক আনোয়ারুল ইসলাম।

শুক্রবার (২০ নভেম্বর) বেলা ৩টার দিকে উপজেলার জোনাইল ইউনিয়নের দিঘইর গ্রাম থেকে তাকে আটক করা হয়। আটক ব্যাক্তি উপজেলার দিঘইর গ্রামের মৃত মসলেম উদ্দিনের ছেলে ও ধর্ষণ চেষ্টার শিকার কিশোরীর প্রতিবেশী চাচা।

স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, কিশোরীর মা-বাবা দৈনিক মজুরে রসুন রোপণের কাজে বাহিরে যায়। বিকেলে কিশোরী মেয়েটি বাড়িকে একা রান্না করছিল। এ সময় মোজাম্মেল হক এসে তার মা বাবা বাড়িতে আছে কিনা জানতে চায়। কিশোরী বাবা-মা বাড়িতে না থাকার জানালে মোজাম্মেল হক ঘরে প্রবেশ করে। কিশোরীকে কথা আছে বলে ঘরের ভিতরে ডেকে নেয় এবং জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা করে। এ সময় কিশোরী চিৎকার দিলে স্থানীয় লোকজন এসে মোজাম্মেলকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে বড়াইগ্রাম থানা পুলিশ পরিদর্শক আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে একজনকে আটক করা হয়েছে। কিশোরীর বাবা বাদী হয়ে মোজাম্মেলকে আসামি করে মামলা দায়ের করেছে বলেও জানান তিনি।