জর্জ হ্যারিসন বাংলাদেশের অকৃত্রিম বন্ধু।

নিউজ ডেস্ক: বাংলাদেশের অকৃত্রিম বন্ধু জর্জ হ্যারিসন। তিনি ‘কনসার্ট ফর বাংলাদেশ’ শীর্ষক সংগীতানুষ্ঠানের জন্য স্মরণীয় হয়ে আছেন। বিংশ শতাব্দীর হাতে গোনা কয়েকজন প্রতিভাবান জনপ্রিয় গায়ক এবং গিটারিস্ট মধ্যে একজন। জন্ম ১৯৪৩ সালের ২৫ ফেব্রুয়ারি। বিখ্যাত ব্যান্ড ‘দ্য বিটল্‌স’র চার সদস্যের একজন হিসেবেই তিনি বিখ্যাত হয়ে ওঠেন।

জর্জ হ্যারিসন বাংলাদেশের ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের সময় শরণার্থীদের সাহায্যার্থে ভারতীয় সংগীতজ্ঞ পণ্ডিত রবি শংকরকে নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক শহরের ম্যাডিসন স্কয়ার গার্ডেনে পৃথিবীর বিখ্যাত শিল্পীদের নিয়ে একটি কনসার্ট করেন। ১ আগস্ট ‘কনসার্ট ফর বাংলাদেশ’ শীর্ষক সংগীতানুষ্ঠান থেকে সংগৃহীত ২ লাখ ৫০ হাজার ডলার বাংলাদেশের শরণার্থীদের জন্য দেওয়া হয়েছিল। এটিই ছিলো বিশ্বের ইতিহাসে প্রথম চ্যারিটি কনসার্ট, যেখানেশিল্পীরা কোন পারিশ্রমিক না নিয়ে কন্সার্টের টিকেটমূল্যযুদ্ধাহত শরণার্থীদের ত্রাণ তহবিলে জমা করে দেন। তবুও আজ পর্যন্ত বাংলাদেশ তাকে কোন রাষ্ট্রীয় সম্মান জানায়নি।

লিড গিটারিস্ট হলেও বিটলসের প্রতিটি অ্যালবামেই জর্জ হ্যারিসনের নিজের লিখা ও সুর দেওয়া একক গানও থাকতো। এরমধ্যে জনপ্রিয় ছিল- ‘ইফ আই নিডেড সামওয়ান’, ‘ট্যাক্সম্যান, ‘হোয়াইল মাই গিটার জেন্টলি উইপস্’, ‘হেয়ার কামস্ দ্য সান’ এবং ‘সামথিং’। ২০০১ সালে ২৯ নভেম্বর হ্যরিসন ৫৮ বছর বয়সে মেটাস্টাটিক নন-স্মল সেল লাং ক্যন্সারে মারা যান।