নিউজ ডেস্ক: বাংলা একাডেমি পরিচালিত তিনটি সাহিত্য পুরস্কারের জন্য এ বছর লেখক রফিক কায়সার, শাহরিয়ার কবির ও কবি জুলফিকার মতিনের নাম ঘোষণা করা হয়েছে। সাহিত্যিক ‘মোহম্মদ বরকতুল্লাহ প্রবন্ধ সাহিত্য পুরস্কার’ পাচ্ছেন রফিক কায়সার, ‘কবীর চৌধুরী শিশুসাহিত্য পুরস্কার’ পেয়েছেন সাংবাদিক ও লেখক শাহরিয়ার কবির এবং ‘সা’দত আলি আখন্দ সাহিত্য পুরস্কার’ পাচ্ছেন জুলফিকার মতিন।

রোববার (২০ ডিসেম্বর) একাডেমির এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। আগামী ২৬শে ডিসেম্বর বাংলা একাডেমির সাধারণ পরিষদের ৪৩তম বার্ষিক সভায় আনুষ্ঠানিকভাবে এ তিনটি পুরস্কার দেওয়া হবে।

একাডেমির মহাপরিচালক হাবিবুল্লাহ সিরাজী গণমাধ্যমকে বলেন, এই পুরস্কারগুলো যাদের নামে, তাদের পরিবারের পক্ষ থেকে এই পুরস্কারগুলোর অর্থ দেওয়া হয়। বাংলা একাডেমি তদারকিটা করে থাকে। একেকটি পুরস্কারের মেয়াদকাল একেক রকমের। এখানে আমাদের খুব বেশি দায়িত্ব নেই।

জানা গেছে, পুরস্কারপ্রাপ্তদের মধ্যে জুলফিকার মতিনের সাহিত্য জীবন ষাটের দশক থেকে পাওয়া যায়। রফিক কায়সার আরেকটু পরে সত্তর দশককে চিত্রায়িত করেছেন। শাহরিয়ার কবির মুক্তিযুদ্ধ গবেষণার পাশাপাশি ছোটদের জন্যও সাহিত্য রচনা করেছেন। সত্তরের দশক থেকে সাহিত্য অঙ্গনে যাত্রা শুরু সাহিত্যিক, প্রাবন্ধিক ও সাহিত্য সমালোচক রফিক কায়সারের লেখায় উঠে আসে সমকালীন রাজনীতি ও তার বিশ্লেষণ।

শিশু-কিশোরদের জন্য লেখা তার উল্লেখযোগ্য বই হলো, ‘নুলিয়াছড়ির সোনার পাহাড়’, ‘একাত্তরের যীশু’, ‘সীমান্তে সংঘাত’, ‘হানাবাড়ির রহস্য’, ‘নিশির ডাক’, ‘বার্চবনে ঝড়’, ‘কার্পেথিয়ানের কালো গোলাপ’,‘ লুসাই পাহাড়ের শয়তান’, ‘সাধু গ্রেগরির দিনগুলি’, ‘মরু শয়তান’, ‘একাত্তরের পথের ধারে’, ‘জাহানারা ইমামের শেষ দিনগুলি।’