নিউজ ডেস্ক: রাজধানীর পল্লবীতে বাবার সাথে রাগ করে বাহিরে যেতেই রাতভর সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার হয়েছেন ১৫ বছর বয়সের এক তরুণী। এ ঘটনায় পুলিশ সন্দেহভাজন ৪ ধর্ষককে আটক করেছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পল্লবী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী ওয়াজেদ আলী।

শনিবার (১০ অক্টোবর) রাতে পল্লবীতে এই ঘটনা ঘটে। তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) ভর্তি করা হয়েছে।

জানা গেছে, নোয়াখালী থেকে পল্লবী এলাকায় এক তরুণী তার বাবার বাড়িতে বেড়াতে আসে। পারিবারিক কারণে বাবা-মেয়ের মধ্যে মনোমালিন্য হয়। এক সময় ওই তরুণী বাসা থেকে রাগ করে বের হয়ে যায়। পরে তার স্বজনেরা সম্ভাব্য অনেক স্থানে খোঁজাখুঁজি করেও তাকে পাচ্ছিল না। এরই মধ্যে অভিযুক্তরা তাকে ধরে নিয়ে যায় কালশীর একটি নির্জন মেসে। সেখানে ৬-৭ জন তাকে রাতভর পালাক্রমে ধর্ষণ করে বলে ভুক্তভোগী তরুণী পুলিশের কাছে অভিযোগ করেছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে পল্লবী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী ওয়াজেদ আলী বলেন, এক তরুণী থানায় এসে লিখিত অভিযোগ করে। এরপরই আমরা অভিযান চালিয়ে চারজনকে আটক করেছি। তরুণী ধর্ষণ হয়েছে মর্মে অভিযোগ করলে তাকে পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য ঢামেক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান তিনি।