বিশেষ প্রতিবেদক: নাটোরের গুরুদাসপুরে বাল্যবিয়ে দেয়ার সময় কাজি আনোয়ার পারভেজ ওরফে এনামুল কাজীকে আটক করে কারাগারে পাঠিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. আবু রাসেল ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে কাজীকে ৬ মাসের কারাদণ্ড এবং বর সুরুজ আলীকে ১০ হাজার টাকা জরিমানার রায় দিয়েছেন।

বুধবার (৭ অক্টোবর) রাত পৌনে ৮টার দিকে গুরুদাসপুর পৌর শহরের ৮নং ওয়ার্ড গাড়িষাপাড়া মহল্লায় এ ঘটনা ঘটে।

উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, বুধবার সন্ধ্যায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কাজী আনোয়ার পারভেজ ওরফে এনামুল কাজীর বাড়ি থেকে তাদের আটক করা হয়। উপজেলার বিয়াঘাট ঘাটপাড়া গ্রামের আফসার আলীর ছেলে সুরুজ আলীর সঙ্গে পৌর এলাকার গাড়িষাপাড়া মহল্লার নবম শ্রেণির ছাত্রীকে (১৪) গোপনে কাজীর বাড়ি নিয়ে এসে বাল্যবিয়ে দিচ্ছিলেন। গাড়িষাপাড়া মহল্লায় এনামুল কাজীর বাড়ি থেকে তাদের আটক করা হয়েছে।

এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. আবু রাসেল বলেন, প্রকৃতপক্ষে কাজীদের কারণে বাল্যবিয়ে সংঘটিত হয়। বাল্যবিয়ে নিরোধ আইনে তাদের জেল ও জরিমানা করা হয়েছে। রাতেই ওই কাজীকে নাটোর জেলা কারাগারে নেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

কৃতজ্ঞতা: মো. আখলাকুজ্জামান