নিউজ ডেস্ক: বিএনপির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও সাবেক ভূমি উপমন্ত্রী এড. এম রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলুর বৈধ ব্যাংক হিসাব জব্দ করায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে নাটোর জেলা ছাত্রদল।

সাবেক উপমন্ত্রী দুলুর ব্যাংক হিসাব জব্দ সরকারের ইশারায় হয়েছে মন্তব্য করে নাটোর জেলা ছাত্রদল সভাপতি কামরুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক মারুফ ইসলাম সৃজন এক বিবৃতিতে বলেন, বিএনপির জনপ্রিয় নেতা রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু প্রায় ১৫ বছর আগে ক্ষমতায় ছিলেন। বিএনপি ক্ষমতা থেকে চলে যাওয়ার পরে দুলু ও তার পরিবারের উপর দিয়ে জেল জুলুম ও অনেক নির্যাতন বয়ে গেছে। যা এই সরকারের আমলেও অব্যাহত রয়েছে। আমরা যতটুকু জানি তিনি রীতিমত আয়কর রিটার্ন জমা দেন। তাই তার সকল প্রদর্শিত আয় বৈধ। কিন্তু সরকার তাদের নেতাদের দুর্নীতির খবর অন্য খাতে প্রবাহিত করার জন্য এই হীন ষড়যন্ত্রের ঘুটি দুলুর বিরুদ্ধে চালিয়েছে, যা নিন্দনীয় এবং দুঃখজনক।

সরকার ক্ষমতা অপব্যবহার করে অন্যায়ভাবে ব্যাংক হিসাব জব্দ করেছে উল্লেখ করে নাটোর জেলা ছাত্রদলের দুই শীর্ষ নেতা আরো বলেন, সাবেক উপমন্ত্রী দুলুকে আর্থিক ও সামাজিকভাবে পঙ্গু করে তার রাজনৈতিক ভবিষ্যত ধ্বংস করার হীন প্রচেষ্টায় সরকার বৈধ ব্যাংক হিসাব জব্দ করেছে। নাটোর জেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি দুলুর সকল হিসাব জব্দ মুক্ত করে দেয়ার জন্য জোর দাবি জানাচ্ছি। সেই সঙ্গে বিএনপির সকল নেতাকর্মীদের বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা দুলুর পাশে দাঁড়িয়ে দেশব্যাপী তীব্র নিন্দা, ঘৃণা ও ক্ষোভ প্রকাশ করার জন্য আহ্বান জানাচ্ছি।

প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার (১ সেপ্টেম্বর) দুদকের তদন্ত কর্মকর্তা শফিউল্লাহর অনুরোধে বাংলাদেশ ব্যাংকের ফাইন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিট বিএফআইইউ  সাবেক ভূমি উপমন্ত্রী ও বিএনপির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক এ্যাড. রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু ও তার সহধর্মিণী সাবিনা ইয়াসমিন ছবির ব্যাংক হিসাব জব্দ করে। দুদকের পরিচালক (জনসংযোগ) প্রণব কুমার ভট্টাচার্য এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।