নিউজ ডেস্ক: দিনাজপুরের বিরামপুরে সপ্তম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে অভিযুক্ত দুই যুবককে আটক করেছে পুলিশ। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিরামপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুজ্জামান মনির।

শনিবার (১৭ অক্টোবর) পুলিশ অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত দুই যুবককে আটক করে দিনাজপুর আদালতে সোপর্দ করেছে। এর আগে শুক্রবার দিবাগত রাতে ধর্ষণের ঘটনায় ওই ছাত্রীর বাবা বিরামপুর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা করেছেন।

আটককৃতরা হলেন, নাহিদ ইসলাম (২০) বিরামপুর পৌর এলাকার মাহমুদপুর গ্রামের সিরাজুল ইসলামের ছেলে এবং সুমন আহমেদ (এস্তামুল) (২৪) একই গ্রামের এনামুল হকের ছেলে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে বিরামপুর থানার ওসি মনিরুজ্জামান মনির জানান, দীর্ঘদিন ধরে বিরামপুর পৌর শহরের স্থানীয় যুবক নাহিদ ইসলাম ও সুমন আহমেদ (এস্তামুল) ভুক্তভোগী মেয়েটিকে বিয়ের প্রস্তাবসহ বিভিন্নভাবে উত্যাক্ত করে আসছিল।

এর মধ্যে শুক্রবার দিবাগত রাত ৮টার দিকে ভুক্তভোগী ছাত্রীর বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে নাহিদ তার সহযোগী বন্ধু সুমনকে নিয়ে ওই ছাত্রীকে মুখ চেপে ধরে বাড়ির পাশে কলা বাগানে নিয়ে ধর্ষণ করে। এসময় স্থানীয়রা ওই ছাত্রীর উচ্চস্বরের শব্দ শুনে ঘটনাস্থলে এলে বখাটেরা পালিয়ে যায়।

তিনি আরো বলেন, নির্যাতিতা ছাত্রীর বাবা থানায় ধর্ষণের অভিযোগ করলে রাতেই পুলিশ অভিযান চালিয়ে দুই যুবককে আটক করে। ধর্ষণের শিকার মেয়েটিকে ডাক্তারী পরীক্ষা করার জন্য দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।