নিজস্ব প্রতিবেদক: বড়াইগ্রাম থেকে অপহৃত স্কুলছাত্র সজীব আহমেদ বাবু (১০) কে গাইবান্ধার সাদুল্যাপুর উপজেলা চরভগবানপুর গ্রাম থেকে উদ্ধার করেছে বড়াইগ্রাম থানা পুলিশ। উদ্ধারকৃত সজীব আহমেদ বাবু আগ্রাণ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪র্থ শ্রেণীর ছাত্র।

বুধবার রাতে বড়াইগ্রাম থানা পুলিশ তাকে সাদুল্যাপুর উপজেলার চরভগবানপুর গ্রামের ওসমান আলীর বাড়ি থেকে উদ্ধার করেছে। বাবু নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলার আগ্রাণ গ্রামের সেকেন্দার আলী ও শাহেদা বেগমের ছেলে। এ ঘটনায় মূল অপহরণকারীসহ আরো দুই মহিলাকে আটক করা হয়েছে।

আটককৃতরা হলো অপহরণকারী বগুড়া জেলার শেরপুর উপজেলার হুকুম আলী গ্রামের রফিকুল ইসলামের ছেলে ঈসান আহমেদ সোহাগ (২০), তার খালা চন্ডীপুর গ্রামের নজরুল ইসলামের স্ত্রী নুরজাহান বেগম (৩৫), অপর একজনের পরিচয় পাওয়া যায়নি।

পুলিশ ও অপহৃতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, ধর্ম মামা পরিচয়ে শিশু সজিব আহমেদ বাবুকে অপহরণ করে তিন লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করেছিল অপহরণকারী। এই সূত্র ধরেই পুলিশ সজীব আহম্মেদ বাবুকে জীবিত উদ্ধারের চেষ্টা চালায়। একপর্যায়ে তাকে উদ্ধারের জন্য পুলিশ প্রযুক্তির সহায়তা নেয়। অবশেষে অপহরণের চারদিন পর বুধবার রাতে বড়াইগ্রাম থানা পুলিশ তাকে সাদুল্যাপুর উপজেলার চরভগবানপুর গ্রামের ওসমান আলীর বাড়ি থেকে স্থানীয় পুলিশ প্রশাসনের সহায়তায় উদ্ধার করে।