নিউজ ডেস্ক: আলেক-আনসার-সাঈদ বাহিনীর অব্যাহত সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড থেকে সাধারণ মানুষকে রক্ষার দাবিতে নাটোরের বড়াইগ্রামে মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী। এসময় সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে অবস্থান নেয়ায় নগর ইউপি চেয়ারম্যানের নামে মিথ্যা অপপ্রচারের প্রতিবাদ করা হয়।

সোমবার (৩১ আগস্ট) নাটোর-পাবনা মহাসড়কের ধানাইদহ বাজারে ঘন্টাব্যাপী আয়োজিত এ মানববন্ধনে কয়েক শতাধিক নারী-পুরুষ অংশ নেন। মানববন্ধনে জনতার দাবির প্রতি একাত্মতা জানিয়ে বক্তব্য রাখেন নগর ইউপি চেয়ারম্যান নীলুফার ইয়াসমিন ডালু।

মানববন্ধনকালে আলেক-আনসার-সাঈদ বাহিনীর হাতে নির্যাতিত বয়োবৃদ্ধ জাহেদা বেগম, রমেছা বেগম, মফেজউদ্দিন, সাবেক ইউপি সদস্য আবুল হোসেন ও আব্দুল বারেক তাদের উপরে লোমহর্ষক নির্যাতনের তথ্য তুলে ধরে কান্নাজড়িত কন্ঠে বক্তব্য রাখেন।

এর আগে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আব্দুল কাদের মন্ডল, নগর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক জহুরুল ইসলাম আলহামদু ও ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি মোক্তার হোসেন প্রমুখ।

এ সময় বক্তারা বলেন, র‌্যাব সদস্যকে পিটিয়ে রিভলবার ছিনতাই ও চালককে হত্যা করে সরকারি গম বোঝাই ট্রাক ছিনতাইসহ একাধিক মামলার আসামি আলেক-আনসার-সাঈদ বাহিনীর সদস্যদের হাতে সম্প্রতি বৃদ্ধা থেকে শুরু করে প্রধান শিক্ষক, ইউপি সদস্য ও চা দোকানীসহ প্রায় ৭০ জন মানুষ মধ্যযুগীয় কায়দায় শারীরিক নির্যাতনের শিকার হয়েছেন।

মূলত আলেক-আনসার-সাঈদ বাহিনীর হাতে ধানাইদহ গ্রামের মানুষ জিম্মি হয়ে পড়েছে। কিন্তু অজ্ঞাত কারণে পুলিশ তাদেরকে আটক করছে না। উপরন্তু গত শুক্রবার তারা মাত্র ৩০-৩৫ জন নারী-পুরুষ নিয়ে নিজেদের বাড়ির আঙ্গিনায় কথিত মানববন্ধনের নামে নির্যাতিত মানুষের পাশে দাঁড়ানোর কারণে ইউপি চেয়ারম্যান নীলুফার ইয়াসমিনের বিরুদ্ধে মিথ্যা অপপ্রচার করেছে তারা।

বক্তারা অবিলম্বে প্রশাসনের প্রতি এসব সন্ত্রাসীদের আটকের পাশাপাশি মিথ্যা অপপ্রচার বন্ধের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান। অন্যথায় আগামিতে আরো বৃহত্তর কর্মসূচি দেয়া হবে বলে হুঁশিয়ারি দেন মানববন্ধনকারীরা।