নিজস্ব প্রতিবেদক: বড়াইগ্রামে “তর্ক নয়, যুক্তিই হোক মুক্তির হাতিয়ার” শ্লোগানকে সামনে নিয়ে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৯ তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে মাধ্যমিক পর্যায়ে বিতর্ক উৎসব অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পরে কল্লোল ফাউন্ডেশন এই বিতর্ক উৎসবের আয়োজন করে। প্রধান অতিথি হিসেবে জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও নাটোর-৪ আসনের সাংসদ আব্দুল কুদ্দুস উপস্থিত ছিলেন।

আগ্রান উচ্চ বিদ্যালয় চত্ত্বরে কল্লোল ফাউন্ডেশনের গ্ররুদাসপুরের সভাপতি মোক্তাদিরুল ইসলাম (মিন্টু বিশ্বাস) এর সভাপতিত্বে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে জেলা প্রশাসক শাহরিয়াজ, পুলিশ সুপার সাইফুল্লাহ আল মামুন (বিপিএম,পিপিএম-বার) বক্তৃতা করেন।

অনুষ্ঠানে সম্মানিত বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বড়াইগ্রাম উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আনোয়ার পারভেজ, গুরুদাসপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মিজানুর রহমান, বড়াইগ্রাম থানার পরিদর্শক দিলিপ কুমার দাস, গুরুদাসপুর থানার পরিদর্শক মোজহারুল ইসলাম, কল্লোল ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা কোহেলী কুদ্দুস মুক্তি, দাতা সদস্য আসিফ আব্দুল্লাহ্ বিন কুদ্দুস (শোভন)। এ ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বড়াইগ্রাম ও গুরুদাসপুর উপজেলার সকল ইউপি চেয়ারম্যান বৃন্দ।

এসময় কল্লোল ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক মিল্টন উদ্দিনের আমন্ত্রণে “বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বাস্তবায়নে তরুণ প্রজন্মই হবে সরকারের অন্যতম অবলম্বন” বিষয়ে বিতর্ক উৎসব অনুষ্ঠিত হয়। বড়াইগ্রাম উপজেলার মধ্যে বিজয়ী রাজাপুর উচ্চ বিদ্যালয় ও গুরুদাসপুর উপজেলার মধ্যে বিজয়ী হাসমাড়ি উচ্চ বিদ্যালয় বিতার্কিক হিসেবে বিতর্ক উপস্থাপন করেন। বিতার্কিকগণের বিতর্কে হাসমাড়ি উচ্চ বিদ্যালয় বিজয়ী হয়।