ছবি: প্রতীকী

নিউজ ডেস্ক: নাটোরের বড়াইগ্রামে স্কুলছাত্রীকে উত্যক্ত করাকে কেন্দ্র করে সালিস বৈঠকে মেয়েটির চাচাসহ তিনজনকে রড ও লাঠি দিয়ে পিটিয়ে জখম করেছে উত্যক্তকারী বখাটেরা। এ ঘটনায় গুরুতর আহত রিপনকে রাতেই বড়াইগ্রাম হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

সোমবার (৩১ আগস্ট) রাতে উপজেলার জোনাইল ইউনিয়নের চৌমুহন গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। রিপন চৌমুহন গ্রামের ইকরাইল হোসেনের ছেলে ও আদগ্রাম উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্র। সে উত্যক্তের শিকার স্কুলছাত্রীর চাচা। এ ঘটনায় আহত অপর দুজনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার চৌমুহন গ্রামের বখাটে আজিম ও হাসানসহ ৪-৫ জন যুবক কিছুদিন যাবৎ প্রতিবেশী এক স্কুলছাত্রীকে উত্যক্ত করে আসছিল। কিন্তু স্কুলছাত্রীর চাচা রিপন মেয়েটিকে উত্যক্ত করতে বাধা দেয়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে তারা রিপনকে মারপিটের হুমকি দেয়। এ ব্যাপারে সোমবার রাতে এ ব্যাপারে আজিজুল সরদারের বাড়িতে সালিস বসে। সেখানে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে উত্যক্তকারী বখাটেরা রিপন, তার ভাই রাসেল ও মামা এনামুল হককে পিটিয়ে জখম করে।

এ ব্যাপারে বড়াইগ্রাম থানার ওসি দিলীপ কুমার দাস জানান, এ ঘটনায় এখনো কেউ লিখিত অভিযোগ দেয়নি। অভিযোগ পেলে দোষীদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানান।