নিউজ ডেস্ক: রাজধানীর উত্তরার একটি নির্মাণাধীন বাড়ির নিচতলা থেকে যুবদল নেতার দেয়া তথ্যে ৩১ হাত বোমা উদ্ধার করে নিষ্ক্রিয় করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) বম্ব ডিসপোজাল ইউনিট। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ডিবি উত্তরা বিভাগের উপকমিশনার কাজী শফিকুল আলম।

শুক্রবার (২০ নভেম্বর) সকাল থেকে অভিযান শুরু হলেও বিকেলে ১০ নম্বর সেক্টরের ১৩ নম্বর রোডে এ বাড়িটির সন্ধান পায় মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ। এরপর থেকে বাড়িটি ঘিরে রাখা হয় এবং পরে বম্ব ডিসপোজাল ইউনিট এসে বোমাগুলো নিষ্ক্রিয় করে।

উত্তরা পশ্চিম থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বোমাগুলো মজুতে জড়িত থাকার অভিযোগে তুরাগ থানা এলাকার সুমন ও মামুন নামে দুজনকে আটক করেছে পুলিশ। প্রাথমিকভাবে জানা গেছে, তারা দুজনই স্থানীয় যুবদলের নেতা। তারা কেন সেখানে হাতবোমাগুলো এনেছিল তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। নির্মাণাধীন বাড়িটি একজন কানাডা প্রবাসীর। বাড়ির কাজ এখনও শেষ হয়নি।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ডিবি উত্তরা বিভাগের উপকমিশনার কাজী শফিকুল আলম বলেন, ঢাকা-১৮ উপনির্বাচন চলাকালে ককটেল নিক্ষেপ করে পালানোর সময় সোহেল নামে একজনকে হাতে নাতে গ্রেফতার করা হয়। পরবর্তীতে তার দেয়া তথ্যে গ্রেফতার করা হয় মামুন নামে আরো এক যুবদলে নেতাকে।

কাজী শফিকুল আলম আরো বলেন, এই যুবদল নেতার দেয়া তথ্যে ওই বাড়িটিতে অভিযান চালিয়ে বোমাগুলো উদ্ধার করা হয়েছে। বম্ব ডিসপোজাল ইউনিট এসে সেগুলো বিষ্ফোরণ ঘটিয়ে নিষ্ক্রিয় করেছে। বোমাগুলো নিষ্ক্রিয় করার মাধ্যমে অভিযান শেষ হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত আরও কয়েকজনের নাম পাওয়া গেছে। তদন্ত শেষে বিস্তারিত জানানো হবে।

উদ্ধার হওয়া বোমাগুলো কী ধরনের ছিল এমন প্রশ্নে শফিকুল আলম বলেন, বোমাগুলোর নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। পরীক্ষা করে কী ধরনের বোমা তা বলা যাবে। এর আগে বিভিন্ন সময়ে উদ্ধার বোমাগুলোর সঙ্গে কোনো সাদৃশ্য রয়েছে কিনা তাও জানা যাবে।