নিজস্ব প্রতিবেদক: ৮দিন ধরে নিখোঁজ যুবলীগ নেতা জামিল হোসেন মিলনের সন্ধান চেয়ে জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারকে স্মারকলিপি প্রদান করেছেন নিখোঁজ জামিল হোসেন মিলনের পরিবার ও আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী। মিলন নাটোর সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী এবং জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ও বর্তমানে জেলা যুবলীগের প্রস্তাবিত কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক। গত ৩১ জানুয়ারি নাটোর সদর উপজেলার তালতলা এলাকা থেকে নিখোঁজ হন তিনি।

বৃহস্পতিবার (৭ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে জেলা প্রশাসক শাহরিয়াজ ও পুলিশ সুপারের পক্ষে এসআই আতাউর রহমানের কাছে স্মারকলিপিটি হস্তান্তর করেন নিখোঁজ মিলনের বাবা এমদাদুল হক, মিলনের ছোট বোন আখিঁ, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক সৈয়দ মোর্ত্তৃজা আলী বাবলু, জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক দিলিপ কুমার দাস প্রমুখ।

স্মারকলিপিতে এমদাদুল হক জানান, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান প্রার্থী জামিল হোসেন মিলনকে গত ৩১ জানুয়ারি মধ্যরাতে অজ্ঞাত ৭-৮জন ব্যক্তি অপহরণ করে। এরপর তার ব্যবহৃত ফোন থেকে ১ কোটি টাকা মুক্তিপণ দাবি করা হয়। বিষয়টি স্থানীয় পুলিশ প্রশাসনকে জানানো হলেও এখনও মিলনের কোন সন্ধান পাওয়া যায়নি।

মিলনের সন্ধানে সহায়তার জন্য জেলা প্রশাসকে ও পুলিশ সুপারের সহায়তা কামনা করেন এমদাদুল হক।

প্রসঙ্গত, মিলনের বাবা এমদাদুল হক মিয়াজী নাটোর প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে ও নাটোর থানায় দায়েরকৃত জিডিতে অভিযোগ করেন, র‌্যাব পরিচয়ে সাদা পোশাকের একটি দল গত বৃহস্পতিবার (৩১ জানুয়ারি) মধ্যরাতে নাটোর সদর উপজেলার তালতলা হাফরাস্তা এলাকা থেকে তার ছেলেকে তুলে নিয়ে গেছে।