নিউজ ডেস্ক: ব্রিটেনের প্রথম বাঙালি এমপি রুশনারা আলীর অফিস উড়িয়ে দেয়ার হুমকি ও তাকে গাল দিয়ে ২৯০টি মেসেজ দেয়ার অপরাধে বিচারের শুনানি শুরু হয়েছেন হোসেন শাহ নামে এক বাঙালি যুবক।

মাইল এন্ডের হোসেন শাহ স্টকার মেসেজ এবং ইমেইলে এমপি রুশানারা আলীকে প্রয়াত লেবার এমপি জৌ কক্স স্টাইলে হত্যার হুমকি দিতেন।

পরে স্টকারের অব্যাহত হুমকির মুখে ভীত হয়ে সার্জারি পাল্টামেন্টের স্থানান্তর করতে বাধ্য হন তিনি। বুধবার স্নেয়ার্সব্রোক ক্রাউন কোর্টের শোনানিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

কোর্ট জানিয়েছে, হোসাইন শাহ নামে ৪১ বছর বয়সী এই স্টকার বেথনালগ্রীনের বাসিন্দা। হাউসিং সমস্যা নিয়ে প্রথমে এমপি রুশানারা আলীর সার্জারিতে গিয়েছিলেন। এরপর ২০১৮ সালের এপ্রিল থেকে ২০১৯ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত ২৯০টি মেসেজে এসব হুমকি দিয়েছেন হোসাইন শাহ।

কোর্টে আইনজীবি ফিলিপ ম্যাকঘি জানিয়েছেন, স্টকার শাহ মেসেজ পাঠিয়েছেন এমপি রুশানারা আলীর ভাইকেও। অতীতে কোনো এক সময় তারা এক সাথে কাজ করেছেন। এই সূত্রে তারা কিছুটা হয়তো পূর্ব পরিচিত। ভাইকে পাঠানো মেসেজে স্টকার শাহ বলেছেন, জৌ কক্স স্টাইলে এমপি রুশানারা আলীকে কিছু করার জন্য তার অফিসে একটি হ্যান্ড গান নিয়ে গিয়েছিলেন।

কোর্টের শোনাতি আরো বলা হয়েছে, অন্য একটি টেক্সট মেসেজে শাহ পেট্টল দিয়ে টেরোরিষ্ট স্টাইলে এমপি রুশানারা আলীর অফিস উড়িয়ে দেবার হুমকি দেন।

অব্যাহত এসব হুমকিতে ভীত হয়ে পড়েছিলেন এমপি রুশানারা আলী। সব সময় মনের মধ্যে অজানা ভয় নিয়ে চলাফেরা করতে হত। ভীত হয়ে সার্জারি নিয়ে ওয়েস্টমিনষ্টারে পার হয়ে যান তিনি।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে স্টকার হোসাইন শাহকে গ্রেফতারের সময় তার ঘর থেকে দুটি আইপ্যাড এবং একটি ল্যাপটপ উদ্ধার করে পুলিশ।

এদিকে কোর্টে নিজের অপকর্মের জন্যে দুঃখ প্রকাশ করে বর্ণবাদী এবং ধর্মীয় দৃষ্টিকোন থেকে এমপি রুশানারা আলীকে হত্যা, হয়রানি এবং অফিস উড়িয়ে দেওয়ার কথাও স্বীকার করেছেন হোসাইন শাহ। কোর্ট তাকে দোষি সাব্যস্ত করেছে এবং আগামী শুক্রবার তার সাজার মেয়াদ ঘোষণা করবেন বিচারক।