নাটোরের লালপুরে নারী সেজে ইমোর মাধ্যমে প্রবাসীদের কাছ থেকে টাকা হাতিয়া নেয়া চক্রের এমন তিন সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

নিজস্ব প্রতিবেদক: নাটোরের লালপুরে নারী সেজে ইমোর মাধ্যমে প্রবাসীদের কাছ থেকে টাকা হাতিয়া নেয়া চক্রের এমন তিন সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নাটোরের পুলিশ সুপার (এসপি) লিটন কুমার সাহা ও লালপুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সেলিম রেজা।

বুধবার (১১ ডিসেম্বর) গ্রেফতারের বিষয়টি জানাজানি হয়। এর আগে মঙ্গলবার রাতে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়। তারা হলেন লালপুর উপজেলার উত্তর লালপুর এলাকার বাবুল হোসেনের ছেলে সম্রাট (২৪), দক্ষিণ লালপুর এলাকার আজিত মণ্ডলের ছেলে মিঠুন (১৯) এবং মাধবপুর মালপাড়া এলাকার সুরাত মণ্ডলের ছেলে হাসান আলী (২০)।

জানা গেছে, প্রথমে নারীদের নাম ব্যবহার করে ভুয়া ‘ইমো’ আইডি খোলেন তারা। এরপর সুন্দর সুন্দর ছবি দিয়ে আকৃষ্ট করেন প্রবাসী পুরুষদের। ইমোতে কল এবং চ্যাটিংয়ের মাধ্যমে গড়েন বন্ধুত্ব। পরে ফাঁদ পেতে হাতিয়ে নেন প্রবাসীদের টাকা।

বিষয়টি নিশ্চিত করে লালপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সেলিম রেজা বলেন, নারী সেজে ইমোর মাধ্যমে প্রবাসীদের সঙ্গে কথা বলে টাকা হাতিয়ে নিয়ে আসছিল চক্রটি। মঙ্গলবার রাতে অভিযান চালিয়ে এই চক্রের তিন সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়। পরে তাদের মোবাইল জব্দ করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দিয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

এব্যাপারে নাটোরের পুলিশ সুপার (এসপি) লিটন কুমার সাহা বলেন, আমি এখানে যোগ দেয়ার পর থেকে ‘ইমো পার্টি’ নামে একটি চক্রের কার্যক্রম সম্পর্কে অবগত হই। চক্রটি প্রবাসীদের সঙ্গে প্রতারণা করে টাকা হাতিয়ে নিচ্ছিল। এ বিষয়ে একাধিকবার মামলাও হয়েছে। তারপরও চক্রটির তৎপরতা থামছে না। চক্রটি নির্মূলের জন্য কাজ করছি আমরা। প্রবাসীরা আর প্রতারণার শিকার হবে না বলে আশা করছি।