নিউজ ডেস্ক: নাটোরের লালপুরে মাবিয়া (৫১) নামের এক গৃহবধূ ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন লালপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সেলিম রেজা।

শনিবার (২০ নভেম্বর) সকালে ময়নাতদন্তের জন্য নাটোর সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এর আগে শুক্রবার দিবাগত রাতে উপজেলার বিলমাড়ীয়া ইউনিয়নের মমিনপুর গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। মোবিয়া লালপুর উপজেলার মমিনপুর গ্রামের আফাজ আলীর স্ত্রী।

পুলিশ ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার দিবাগত রাতে পারিবারিক সকল কাজ-কর্ম শেষে প্রতিদিনের মতো তার শোবার ঘরে ঘুমাতে যায়। এপরে পরিবারের সকলের অগোচরে তার নিজ ঘরের দরজা বন্ধ করে ঘরের তীরের সাথে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেন। পরে তার স্বামী শোবার জন্য ঘরের কাছে গিয়ে দেখে ঘরের দরজা বন্ধ। এমতাবস্থায় অনেক ডাকাডাকির পর দরজা না খুললে, পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা এগিয়ে এসে ঘরের দরজা ভেঙ্গে তার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে লালপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সেলিম রেজা জানান, ‘খবর পেয়ে রাতেই নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে শনিবার সকালে ময়নাতদন্তের জন্য নাটোর সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় লালপুর থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।