নিজস্ব প্রতিবেদক: লালপুর উপজেলার নর্থ বেঙ্গল সুগার মিলস হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষককে পায়ের জুতা দিয়ে প্রহার করেছে সাইদুর রহমান নামের এক শ্রমিক নেতা। অভিযুক্ত সাইদুর রহমান নর্থ বেঙ্গল সুগার মিলের কারখানা বিভাগের শ্রমিক, সিবিএ’র সাবেক সহ সাধারণ সম্পাদক ও নাটোর জেলা শ্রমিক লীগের শিক্ষা ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক।

বুধবার (৩ এপ্রিল) সকালে এই ঘটনার প্রতিবাদে স্কুলের সকল শিক্ষক কর্মচারীরা মৌন মিছিল ও প্রতিবাদ সভা করেছে। শিক্ষকদের মিছিলটি নর্থ বেঙ্গল সুগার মিলস হাইস্কুল চত্ত্বর থেকে বের হয়ে নর্থ বেঙ্গল সুগার মিলের প্রশাসনিক ভবনে গিয়ে প্রতিবাদ সভা করে।

শিক্ষকরা মিলের ব্যবস্থাপনা পরিচালকের সাথে দেখা করে ওই শ্রমিক নেতার দৃষ্টান্তমুলক শাস্তি দাবি করেন। প্রাথমিক তদন্তে আভিযোগের সত্যতার প্রমাণ পাওয়ায় ওই শ্রমিক নেতাকে সাময়িক বরখাস্ত করেছে মিল কর্তৃপক্ষ।

লাঞ্ছিত প্রধান শিক্ষক গাওছুল আজম জানান, মঙ্গলবার সকালে তিনি তার দাপ্তরিক কাজের জন্য নর্থ বেঙ্গল সুগার মিলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) সৈয়দ আবু বকর এর দপ্তরে যান। সেখান থেকে ফেরার পথে মিলের কারখানার মধ্যে কারখানার স্থায়ী ওয়ার্কসপ হেলপার ও শ্রমিক নেতা সাইদুর রহমান তাকে পায়ের স্যান্ডেল দিয়ে প্রহার করে। বিষয়টি মিলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক বরাবরে লিখিতভাবে জানানো হয়েছে।

উক্ত বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক জিয়াউর রহমান জানান, প্রধান শিক্ষককে লাঞ্ছিত করা গুরুতর অপরাধ, আমরা এর সুষ্ঠু বিচারের দাবিতে মৌন মিছিল করেছি এবং আমাদের দাবি মিলের ব্যবস্থাপনা পরিচালককে জানিয়েছি, তিনি আমদের কথা শুনেছেন এবং সঠিক বিচারের আশ্বাস দিয়েছেন।

এদিকে অভিযুক্ত শ্রমিক নেতা সাইদুর রহমান ঘটনার সত্যতা অস্বীকার করে বলেন, তার বিরুদ্ধ আনিত অভিযোগ সম্পুর্ণ মিথ্যা ও বানোয়াট।

এব্যাপারে মিলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) সৈয়দ মোহাম্মাদ আবু বকর জানান, প্রাথমিক তদন্তে প্রধান শিক্ষকের অভিযোগের বিষয়টির সত্যতা পাওয়া গেছে, অভিযুক্ত সাইদুর রহমানকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে, সঠিক তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।