নিউজ ডেস্ক: নাটোরের লালপুর উপজেলা যুবদল নব গঠিত কমিটকে প্রত্যাখান করে ত্যাগী নেতাকর্মীদের নিয়ে কমিটি গঠনের দাবি জানিয়েছেন যুবদল নেতাকর্মীরা। না হলে তারা গণপদত্যাগের হুমকি দিয়েছে।

শনিবার (১০ অক্টোবর ২০২০) দুপুরে স্থানীয় একটি রেস্তোরায় সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য এসব কথা জানান যুবদলের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য নাজির উদ্দিন বাবু। এ সময় উপস্থিত ছিলেন যুবদল কর্মী ফিরোজ হোসেন মিল্টন, রবিউল ইসলাম রবি, বুলবুল আহমেদ, জাফর আহমেদ, এনামুল হক বিদ্যুৎ, মেহেদী হাসান আরিফ, জালাল উদ্দিন প্রমুখ।

তাদের দাবি, সংগঠনের ত্যাগী নেতাদের বাদ দিয়ে পকেট কমিটি গঠন করা হয়েছে। এই কমিটি গঠনের প্রতিবাদে প্রায় কয়েকশত যুবদল নেতাকর্মী একটি পদত্যাগ পত্রে স্বাক্ষরও করেছেন। কমিটি বাতিল না হলে, গণপতদ্যাগ পত্রটি কেন্দ্রে পাঠানো হবে। সংকট নিরসনে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন তারা।

উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি নাজির উদ্দিন বাবু অভিযোগ করেন, সম্প্রতি যুবদলের কেন্দ্রীয় কমিটির সুপারিশে নাটোর জেলা যুবদল লালপুর উপজেলা যুবদলের আহ্বায়ক কমিটির অনুমোদন দিয়েছে। পুরোপুরি অগণতান্ত্রিকভাবে এই কমিটি অনুমোদন দেয়া হয়েছে। কমিটিতে সিনিয়র ও ত্যাগী নেতাকর্মীদের মূল্যায়ন করা হয়নি।

তিনি আরো বলেন, আমরা লালপুর উপজেলা যুবদলের নবগঠিত কমিটি প্রত্যাখ্যান করছি। গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে কমিটি গঠন না হলে প্রয়োজনে দল থেকে স্বেচ্ছায় অব্যাহতি নেওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে বাধ্য হবো। ইতোমধ্যে প্রায় দুই হাজার নেতাকর্মী এই অগণতান্ত্রিক কর্মকাণ্ডের প্রতিবাদে স্বেচ্ছায় দল থেকে অব্যাহতি নেওয়ার জন্য প্রস্তুতি গ্রহণ করেছেন।

প্রসঙ্গত, গত ২৮ শে সেপ্টেম্বর যুবদল কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির দপ্তর সম্পাদক কামরুজ্জামান দুলাল স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে আব্দুস সালামকে উপজেলা যুবদলের আহ্বায়ক, ফিরোজ হোসেন মিল্টনকে সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক ও এমরান হোসেনকে সদস্য সচিব করে একটি কমিটি ঘোষণা করা হয়। পরে তারা লালপুর উপজেলা যুবদলের ৩১ সদস্য বিশিষ্ট আহবায়ক কমিটি ঘোষণা করা হয়।