শতভাগ বিদ্যুতায়িত উপজেলা সিংড়া। ছবি: মো. আবু জাফর সিদ্দিকী

বিশেষ প্রতিবেদক: নাটোরের সিংড়ায় বিগত ১১ বছরে বেড়েছে বিদ্যুৎ সেবার মান। প্রধানমন্ত্রীর উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে এ উপজেলা শতভাগ বিদ্যুতায়ন কার্যক্রমের আওতায় এসেছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবন থেকে সরাসরি ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে শতভাগ বিদ্যুতায়িত উপজেলাগুলোর এ কার্যক্রম উদ্বোধন করেন।

নাটোর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১, সিংড়া জোনাল অফিস সূত্রে জানা যায়, সিংড়া জোনাল অফিসের কার্যক্রম শুরু হয় ১৯৮৭ সালের ২রা আগষ্ট। উপজেলায় ৪৩৯টি গ্রামে প্রায় ১ হাজার ৮শ ৩৪ কিলোমিটার বিদ্যুৎ লাইন ও ১ লাখ ১৩ হাজার ৬৯৪ সংযোগের মাধ্যমে শতভাগ বিদ্যুতায়িত উপজেলায় পরিণত হয়েছে। ফলে উপজেলার ১২টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভা পল্লী বিদ্যুৎ বোর্ডের মাধ্যমে বিদ্যুৎ সুবিধাভোগী হলো।

সিংড়া জোনাল অফিসের সহকারি মহাব্যবস্থাপক (এজিএম) মিজানুর রহমান শতভাগ বিদ্যুতায়নের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ২০০৮ সালের জুন মাসের আগে এ উপজেলায় বিদ্যুৎ লাইন ছিলো ৭২২ কিলোমিটার বর্তমানে তা এসে দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৮’শ ৯৯ কিলোমিটার। সেসময় সংযোগ সংখ্যা ছিলো ২৬ হাজার ৭৯৬টি, বিগত ১১ বছরে এ সংখ্যা ৮৬ হাজার ৮৯৮টি বেড়ে ১ লাখ ১৯ হাজার ৫০০ টিতে দাঁড়িয়েছে।

এই উপজেলায় উপকেন্দ্রের সংখ্যা ২টি এবং মোট ক্ষমতা ৩০ এমভিএ। পিক ডিমান্ড ছিলো ০৮ বর্তমানে তা ১৪ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২২ এ। ১৯৮৭ থেকে ২০০৮ সাল পর্যন্ত সিস্টেম লস ছিলো ১৩.৬৫ শতাংশ, বিগত ১১ বছরে ৯.৯৬ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ৩.৬৯ শতাংশে। ২৬৫টি গভীর নলকূপ সহ বিভিন্ন শ্রেণীর সেচ সংযোগ বর্তমানে প্রায় ৪ হাজার। চলনবিলের কৃষিতে ফসল উৎপাদনে ব্যাপক ভূমিকা রেখেছে সিংড়া পল্লী বিদ্যুৎ।

সিংড়া জোনাল অফিসের উপ-মহাব্যবস্থাপক (ডিজিএম) রেজাউল করিম বলেন, পূর্বের যেকোন সময়ের চেয়ে বর্তমানে বিদ্যুৎ সেবার মান বেড়েছে। এ উপজেলায় কোন লোডশেডিং ও গ্রাহক হয়রানি নেই। গ্রাহকের যেকোন সমস্যা তাৎক্ষণিক সমাধান করার জন্য আমরা সবসময় প্রস্তুত।

কৃতজ্ঞতা: মো. আবু জাফর সিদ্দিকী