ছবি: প্রতীকী

নিউজ ডেস্ক: নাটোরের বাগাতিপাড়া উপজেলায় ফৌজদারি মামলায় অভিযুক্ত সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ও দফতরি মাদক মামলায় জেল খাটার পরও এখন পর্যন্ত তাদের বিরুদ্ধে জারি হয়নি সাময়িক বহিষ্কার!

অভিযুক্ত শিক্ষক ও দফতরি হলেন, উপজেলার জয়ন্তীপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক আশফাকুল আশেকিন ও মডেল প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দফতরি রওশন কামাল সবুজ। তারা দুজনই আদালতে জামিন নিয়ে নিজ পদে এখনও কর্মরত রয়েছেন বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে বাগাতিপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাজমূল হক জানান, উপজেলার জয়ন্তীপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক আশফাকুল আশেকিন গত ১৯ অক্টোবর আটক হন। এরপর মাদক মামলায় ২৫ অক্টোবর ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেন। অপরদিকে মডেল প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দফতরি রওশন কামাল সবুজ ৩১ অক্টোবর আটক হন। তিনি মাদক মামলায় ১৩ নভেম্বর ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন।

অন্যদিকে জয়ন্তীপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সুলতান উদ্দীন আহমেদ জানান, বিষয়টি জানার পর অভিযুক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে তিনি উপজেলা ও জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তাকে চিঠি দিয়েছেন।

এছাড়া মডেল প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি রাশেদুল আলম জানান, মাদক মামলায় সবুজের জেল খাটার বিষয়টি লোকমুখে জানলেও তারা বিষয়টি নিশ্চিত নন।

অন্যদিকে দফতরি সবুজ জানান, ওটা তেমন কিছু না। তার বিরুদ্ধে একটা ষড়যন্ত্র হয়েছিল। বিষয়টি মীমাংসা হয়ে গেছে।

তবে সবুজের মামলার তদন্ত কর্মকর্তা উপপরিদর্শক (এসআই) গোলাম মোস্তফা সবুজের দাবি অস্বীকার করে জানান, গত ১৩ নভেম্বর তিনি ওই মামলার চার্জশিট আদালতে জমা দিয়েছেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা এরশাদ উদ্দীন জানান, বিষয় দুটি তিনি অবগত। এ সংক্রান্ত নির্দেশনা উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তাকে দেওয়া হয়েছে। দ্রুতই এ ব্যাপারে পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।