নিউজ ডেস্ক: দেশের জনপ্রিয় টিভি তারকা এবং এক সময়ের নিয়মিত মঞ্চকর্মী আফসানা মিমি এবার বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির পরিচালক হলেন। তাকে তিন বছরের জন্য চুক্তি ভিত্তিক নিয়োগ দিয়েছে সরকার।

আফসানা মিমি জানান, ‘নাটক করেই একটি জীবনের বেশিরভাগ সময় কাটিয়ে দিলাম। আমার সমস্ত ভাবনায় নাটকের উন্নয়ন। কাজেই এই নিয়োগে সরকারের প্রতি আমার কৃতজ্ঞতার শেষ নেই। আমি ভীষণ খুশি।’

নব্বই দশকে মঞ্চ নাটক দিয়ে অভিনয়ে পথচলা শুরু আফসানা মিমির। দেশ সেরা নাটকের দল নাগরিক নাট্য সম্প্রদায়ে যোগ দেন তিনি। এই দলের হয়ে নিয়মিত অনেক বছর সফলতার সঙ্গে কাজ করেছেন।

আফসানা মিমি তার প্রতিক্রিয়ায় বলেন, ‘নাটক করেই একটি জীবনের বেশিরভাগ সময় কাটিয়ে দিলাম। আমার সমস্ত ভাবনায় নাটকের উন্নয়ন। কাজেই এই নিয়োগে সরকারের প্রতি আমার কৃতজ্ঞতার শেষ নেই। আমি ভীষণ খুশি।’

প্রসঙ্গত, আফসানা মিমি মঞ্চ-টেলিভিশন ও সিনেমার অভিনয় শিল্পী হলেও গেল কয়েক বছর ধরে কেবল নাটক পরিচালনায়ই বেশি সময় দিচ্ছেন। একটার পর একটা ধারাবাহিক নাটক পরিচালনা করে দর্শকদের কাছ থেকে সাড়া পেয়েছেন।

আফসানা মিমি প্রথম আলোচনায় আসেন ‘কোথাও কেউ নেই’ ধারাবাহিক নাটকে অভিনয় করে। এ ছাড়া, প্রশংসিত কিছু সিনেমায়ও আফসানা মিমি অভিনয় করেছেন। তার মধ্যে অন্যতম হচ্ছে— চিত্রা নদীর পাড়ে, নদীর নাম মধুমতি প্রভৃতি।

এছাড়া নব্বই দশকে মঞ্চ নাটক দিয়ে অভিনয়ে পথচলা শুরু আফসানা মিমির। দেশ সেরা নাটকের দল নাগরিক নাট্য সম্প্রদায়ে যোগ দেন তিনি। এই দলের হয়ে নিয়মিত অনেক বছর সফলতার সঙ্গে কাজ করেছেন।