নিউজ ডেস্ক: পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে তিনবার আমার দেখা হবে। দুপুরে ইডেনে, সন্ধ্যায় তাজ বেঙ্গল হোটেলে, পরে আবার ইডেনে— সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে।’

শুক্রবার (২২ নভেম্বর) বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে অনুষ্ঠিতব্য দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচ দেখতে এক দিনের সফরে আজ কলকাতা যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সফরে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বৈঠকের কথা রয়েছে। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী নিজেই সাংবাদিকদের বৈঠকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। খবর দ্য হিন্দু

দ্য হিন্দু’র এক প্রতিবেদনে বলা হয়, বাংলাদেশ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীর মধ্যে শুক্রবার আনুষ্ঠানিক বৈঠক হতে যাচ্ছে। তবে দুজনের এই বৈঠক হবে কিনা বৃহস্পতিবার বিকাল নাগাদ তা অস্পষ্ট ছিল।

জানা গেছে, তিস্তা চুক্তি ছাড়াও পশ্চিমবঙ্গের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ভারত-বাংলাদেশ দ্বিপাক্ষিক যে সব বিষয় এখনও অমীমাংসিত, তা নিয়েই মমতার সঙ্গে কথা বলবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এছাড়া কলকাতায় বঙ্গবন্ধুর স্মৃতিবিজড়িত বাড়িগুলো এবং কলকাতায় স্বাধীন বাংলা সরকারের সদর দফতর বলে চিহ্নিত বাড়ি সংরক্ষণের প্রস্তাব দিতে পারেন প্রধানমন্ত্রী। আগামী বছর বঙ্গবন্ধুর বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী। প্রধানমন্ত্রী চান, বঙ্গবন্ধুর স্মারক ভবনগুলোর সঙ্গে ওই বাড়িটিও সংরক্ষণ করে প্রদর্শনশালা করা হোক।

সূত্র জানায়, তিস্তা নিয়ে মোদী সরকারের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রাখছে ঢাকা। এ বিষয়ে সহমত তৈরির চেষ্টা করা হচ্ছে বলে কয়েক মাস আগে হাসিনার দিল্লি সফরের সময় আশ্বস্ত করে ভারত। তবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় স্পষ্ট জানিয়েছেন, পশ্চিমবঙ্গের স্বার্থ ক্ষুণ্ণ করে কোনও চুক্তি তিনি চান না।

মমতার সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর মধুর সম্পর্কের কথা উল্লেখ করে বাংলাদেশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, সেই আন্তরিকতাকে আরও বাড়িয়ে তোলাই হাসিনার উদ্দেশ্য। তাই সৌজন্যের আবহ রেখেই দুই নেত্রী কথা বলবেন।

বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাতে তিস্তা চুক্তির বিষয়টি সম্ভবত হাসিনা উত্থাপন করবেন না।

প্রসঙ্গত, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রেস উইং থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি পশ্চিমবঙ্গের রাজধানী কলকাতায় ঐতিহাসিক ডে-নাইট টেস্ট ম্যাচ দেখতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আনুষ্ঠানিক আমন্ত্রণ জানান। প্রধানমন্ত্রী ও তার সফরসঙ্গীদের বহনকারী বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের একটি বিশেষ ফ্লাইট শুক্রবার সকাল ১০টায় কলকাতার উদ্দেশে হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ছেড়ে যাবে। শেখ হাসিনা স্থানীয় সময় দুপুর সাড়ে ১২টায় ইডেন গার্ডেনে যাবেন এবং পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে সঙ্গে নিয়ে বেল বাজিয়ে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যকার টেস্ট ম্যাচের উদ্বোধন করবেন। আজই রাত ১০টায় বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের একটি বিশেষ ফ্লাইটে ঢাকার উদ্দেশে নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসু আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ত্যাগ করবেন প্রধানমন্ত্রী। ফ্লাইটটি রাত সাড়ে ১১টায় ঢাকায় হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছাবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।