নিজস্ব প্রতিবেদক: একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও প্রজন্ম একাত্তরের প্রতিষ্ঠাতা সাংস্কৃতিক সম্পাদক মেধাবী তরুণ চিকিৎসক, বহুমূখী প্রতিভার অধিকারী ডা. নুজহাত চৌধুরী সংরক্ষিত নারী আসনে জাতীয় সংসদ সদস্য পদে আলোচনায় এগিয়ে আছেন।

একাত্তরের মহান মুক্তিযুদ্ধে শহীদ বুদ্ধিজীবী ডা. আলীম চৌধুরীর মেয়ে তিনি। বর্তমানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের চক্ষু বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক হিসেবে কর্মরত। তার মা শিক্ষাবিদ ও ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির জ্যেষ্ঠ সহ সভাপতি শ্যামলী নাসরিন চৌধুরী। ডা. নুজহাত চৌধুরীর স্বামী লিভার বিশেষজ্ঞ ডা. মামুন আল মাহতাব।

ডা. নুজহাত চৌধুরী একাত্তরের ঘাতক গোলাম আজম, কসাই কাদের মোল্লা, আলবদর কমান্ডার মতিউর রহমান নিজামী, আলী আহসান মুজাহিদ, সালাউদ্দীন কাদের চৌধুরীসহ কুখ্যাত যুদ্ধাপরাধীদের বিচার আন্দোলনের একজন সক্রিয় নেত্রী ও মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বিকাশের অনন্য অগ্রসর ব্যক্তিত্ব। এছাড়া বিভিন্ন জাতীয় দৈনিকে ইংরেজি ও বাংলায় নিয়মিত কলাম লেখেন। একজন ভালো বক্তা ও উপস্থাপক হিসেবে তিনি সমধিক পরিচিত। টেলিভিশনেও চিকিৎসা বিষয়ক অনুষ্ঠান উপস্থাপনা ও রাজনীতি বিষয়ক টকশোতে নিয়মিত অংশ নেন ডা. নুজহাত চৌধুরী। তার লেখা ‘এ লড়াই অনিবার্য ছিল’ মুক্তিযুদ্ধের ওপর একটি অনবদ্য বই।

প্রসঙ্গত, ১৯৬৯ সালের ২৬ নভেম্বর জন্মগ্রহণ করেন নুজহাত। জন্মের পর অবুঝ বয়সে আলবদর আল শামসদের হাতে শহিদ হন তার পিতা ডা. আলিম চৌধুরী। তিনি বেড়ে ওঠেছেন ঢাকায়। রাজধানীর উদয়ন স্কুল থেকে এসএসসি ও বেগম বদরুন্নেসা সরকারি কলেজ থেকে কৃতিত্বের সঙ্গে এইচএসসি পাস করেন। পরবর্তীতে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ থেকে এমবিবিএস করে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এমএস (অপথালমোলজি) করেছেন। এছাড়া রেটিনার ওপর ভারতের এলভিপিএল থেকে ফেলোশিপ করেছেন এ প্রখ্যাত চিকিৎসক। বিসিএস স্বাস্থ্য ক্যাডার হিসেবে কর্মজীবন শুরু । দীর্ঘ নয় বছর কাজ করেছেন জাতীয় চক্ষু বিজ্ঞান ইন্সটিটিউটে। এরপর সরকারি চাকরি ছেড়ে দিয়ে যোগ দেন স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠান বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের চক্ষু বিভাগে। তিনি বাংলাদেশ অপথালমোলজি সোসাইটির বিনোদন সম্পাদক ও একাডেমি অব অপথালমোলজির কোষাধ্যক্ষ।

উল্লেখ্য, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে আওয়ামী লীগের গবেষণা প্রতিষ্ঠান সেন্টার ফর রিসার্স অ্যান্ড ইনফরমেশন (সিআরআই) আয়োজিত ‘লেটস টক উইথ শেখ হাসিনা’ অনুষ্ঠানের উপস্থাপক ছিলেন ডা. নুজহাত চৌধুরী।