নিউজ ডেস্ক: সন্ত্রাসী হামলার জেরে সিঙ্গাপুরে কর্মরত ১৫ জন বাংলাদেশি নির্মাণ শ্রমিককে সিঙ্গাপুর থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। সিঙ্গাপুরের দ্য স্ট্রেইটস টাইমস পত্রিকা আটক বাংলাদেশি আহমেদ ফয়সালের ছবি দিয়ে খবর দিচ্ছে যে এই নির্মাণ শ্রমিককে অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা আইন ও সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকার সন্দেহে আটক করা হয়েছে।

সিঙ্গাপুরের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিকে উদ্ধৃত করে দেশটির দ্য স্ট্রেইটস টাইমস পত্রিকা খবর দিয়েছে যে দেশটিতে কর্মরত ১৫ জন বাংলাদেশি নির্মাণ শ্রমিককে সিঙ্গাপুর থেকে ঢাকায় ফেরত পাঠানো হয়েছে। একই খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা এএফপি এবং মালয়েশিয়া নাউ নামে একটি পত্রিকা। খবর বিবিসি বাংলার

সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে সম্পৃক্ত থাকার সন্দেহে একজন বাংলাদেশি এই মুহূর্তে আটক আছেন বলে সংবাদমাধ্যমে জানানো হয়েছে। আহমেদ ফয়সাল নামে এই বাংলাদেশিকে দোসরা নভেম্বর আটক করা হয়েছে বলে দ্য স্ট্রেইটস টাইমস জানাচ্ছে।

সিঙ্গাপুরের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে সাম্প্রতিক সময়ে ফ্রান্সে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনার পর তারা সামাজিক মাধ্যমে কিছু পোস্ট দিয়েছিল, যা সহিংসতায় ইন্ধন দেয় এবং সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করে বলে সিঙ্গাপুরের কর্তৃপক্ষ বলেছে। সিঙ্গাপুরের পত্রিকা দ্য স্ট্রেইটস টাইমস এই খবর দিয়েছে।

সিঙ্গাপুর থেকে যাদের বহিষ্কার করা হয়েছে, তারা সেখানে নির্মাণ শ্রমিক হিসাবে কাজ করতেন। তবে এসব পোস্টে কী ছিল তা কর্তৃপক্ষ জানায়নি।

এদিকে ঢাকায় হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে পুলিশের ইমিগ্রেশন বিভাগের একজন কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে গত মধ্যরাতে বিবিসি বাংলাকে জানিয়েছেন, সিঙ্গাপুর থেকে ১২জন বাংলাদেশিকে ডিপোর্ট করা হয়েছে বলে তারা শুনেছেন। এই বাংলাদেশিরা বুধবার সকালে ঢাকায় এসে পৌঁছুতে পারে-এমন একটা ধারনা তারা পেয়েছেন। তবে তারা আনুষ্ঠানিকভাবে কিছু জানেন না বলে বলেছেন।

সিঙ্গাপুরে বাংলাদেশ দূতাবাসের কর্মকর্তাদের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করে কথা বলা সম্ভব হয়নি।

সিঙ্গাপুরের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিৃবতি উদ্ধৃত করে সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছে নিরাপত্তা পরিস্থিতির অবনতি ঘটায় সেপ্টেম্বরের গোড়ার দিক থেকে দেশটিতে সর্বোচ্চ সর্তকাবস্থা জারি করা হয়েছে। এবং সিঙ্গাপুরে ফ্রান্সের অনুকরণে কোন হামলা ঠেকাতে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে।

আটক বাংলাদেশি ২৬ বছর বয়সী আহমেদ ফয়সালের সাথে ফ্রান্সের হামলার কোন সম্পৃক্ততা সিঙ্গাপুর কর্তৃপক্ষ পায়নি, তবে তারা প্রাথমিক অনুসন্ধানে জেনেছেন মি. ফয়সাল উগ্রপন্থী মতাদর্শে অনুপ্রাণিত এবং ধর্মের নামে সশস্ত্র সহিংসতা চালাতে পারেন এমন তথ্য তারা পেয়েছেন। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে একথা জানানো হয়েছে বলে দ্য স্ট্রেইটস টাইমস জানাচ্ছে।

তারা জেনেছে আহমেদ ফয়সাল ইসলামিক স্টেটের হয়ে ইরাক ও সিরিয়ায় লড়াই করার জন্য সিরিয়া যেতে চেয়েছিলেন এবং তিনি সিঙ্গাপুরে ছুরি কেনেন। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে উদ্ধৃত করে বলা হয়েছে ফয়সাল দাবি করেন তিনি এসব অস্ত্র বাংলাদেশে ব্যবহারের জন্য কিনেছিলেন।

তবে সিঙ্গাপুরের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে সিঙ্গাপুরে কোন সহিংস কর্মকাণ্ড ঘটানোর কোন পরিকল্পনা তার ছিল না।