নিউজ ডেস্ক: সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বড় কন্যা আলাইনা আল হাসানের এমন একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট করেন টাইগার অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। আর সেই ছবিতেই বেশ আপত্তিকর মন্তব্য করতে শুরু করেন কিছু ফেসবুক ব্যবহারকারী। তাদের ধরতে মাঠে নামছে পুলিশ। বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন বলে জানিয়েছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) সাইবার ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন ডিভিশন।

শুক্রবার (২১ আগস্ট) কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিটের সাইবার ক্রাইমের এ সংক্রান্ত একটি ঘোষণা দেয়।

সিটিটিসির সাইবার ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন ডিভিশন জানায়, বাংলাদেশের গর্ব সাকিব আল হাসানের কন্যার ছবি নিয়ে কিছু বিকৃত মানসিকতার লোক সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সম্প্রতি কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য করেছেন, যা শাস্তিযোগ্য অপরাধ। বিষয়টি আমাদের নজরে এসেছে এবং অপরাধীদের শনাক্ত করে আইনের আওতায় আনার বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন।

ঢাকা মহানগর পুলিশের সাইবার সিকিউরিটিজ অ্যান্ড ক্রাইম বিভাগের উপকমিশনার আ ফ ম আল কিবরিয়া গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, শিশুটিকে নিয়ে করা আপত্তিকর মন্তব্য পুলিশের চোখে পড়েছে। যে যে আইডি থেকে এ ধরনের মন্তব্য করা হয়েছে সেগুলো শনাক্তের কাজ চলছে। শনাক্ত হলে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

জানা গেছে, সপরিবারে যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থান করছেন সাকিব আল হাসান। সেখানেই স্ত্রী-কন্যাকে নিয়ে বেরিয়েছিলেন ঘুরতে। তার পোস্ট করা ওই ছবিতে দেখা যায়, সূর্যমুখী বাগানে দাঁড়িয়ে আছেন হাস্যোজ্জ্বল আলাইনা। চুলে গোঁজা দুটো ফুল। আর সেই ছবিতেই নানাধরনের বাজে মন্তব্য করতে কয়েকজনকে দেখা গেছে।

এদিকে বিষয়টি নিয়ে মুখ খুলেছেন সাকিব আল হাসানের স্ত্রী উম্মে আহমেদ শিশির। শুক্রবার রাতে শিশির ফেসবুকে লিখেছেন, ‘কি হচ্ছে তা আমি জানিও না। এমনকি এতে আমরা বিব্রতও হইনি। পাবলিক ফিগার হিসেবে আমাদের অনেক ভক্ত-সমর্থক, অনেক শুভাকাঙ্ক্ষী যেমন আছেন তেমনই আবার অপছন্দও করেন। এটা সম্পূর্ণ একটা প্যাকেজের মতো। আমরা সবসময় মানুষের আগ্রহের কেন্দ্রে থাকি এবং এটা ভালো। বিশ্বের অনেক সেলেব্রিটি অনেক গুরুতর বিষয় ফেস করেন কিন্তু অন্য দেশগুলোতে তাদের এতটা সময় নেই যে, হাজারো ভালো কমেন্টের মধ্য থেকে ৪-৫টা খারাপ মন্তব্য খুঁজে খুঁজে বের করবে। আমি ওই সকল মন্তব্যকারীদের নিয়ে ভাবছি না কারণ সেগুলোতে আমরা বিব্রত হইনি বরং ওই সকল পেজের এ্যাডমিনদের নিয়ে ভাবছি যারা ওই চারটা কমেন্ট খুঁজে বের করে ছোট্ট একটা বিষয়কে বড় করে তুলেছে। ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ বিষয়টি নিয়ে কাজ করছে। আপনাদের পেজের কিছু উন্নতি হোক! আমাদের উৎসাহ এবং জীবনযাপনে কোনকিছুই প্রভাব ফেলবে না কারণ, এই তুচ্ছ বিষয়টা আমাদের মোটেও বিব্রত করেনি।’